অনলাইনে বিজ্ঞাপন দিয়ে রমরমিয়ে চলছে সেক্স-র‍্যাকেট

হায়দরাবাদ: ফের একবার বড়সড় সেক্স র‍্যাকেটের পর্দাফাঁস করল হায়দরাবাদ পুলিশ৷ গোচিবোবালি এলাকায় পুলিশ দুটি বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালিয়ে দুই গ্রাহকসহ মোট সাতজনকে গ্রেফতার করেছে৷ এছাড়াও দেহ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত যুবতীদেরও উদ্ধার করে পুলিশ৷ পুলিশ সূত্রে খবর, সমস্ত যুবতী মুম্বই ও পুণের বাসিন্দা৷ জানা গিয়েছে অনলাইনে বিজ্ঞাপণের মাধ্যমে এরা সেক্স র‍্যাকেট চালাত৷

গ্রাহক যখন সেক্স র‍্যাকেটের দালালদের সঙ্গে যোগাযোগ করত তখন তারা সব দিক খতিয়ে নিত যাতে পুলিশি ঝামেলায় না জড়াতে হয়৷ এরপরে তারা গ্রাহকদের হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে যুবতীদের ছবি পাঠাত৷ গ্রাহকের যুবতী পছন্দ হলে তারা ওই বাড়িতে গ্রাহকদের ডেকে নিয়ে আসত৷

অন্যদিকে নাগপুর থেকেও এক হাই প্রোফাইল সেক্স র‍্যাকেটের পর্দাফাঁস করেছে পুলিশ৷ তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ দুই যুবতীকে উদ্ধার করেছে৷ পুলিশ সূত্রে খবর, নাগপুরের ওয়ার্ধা রোড এলাকার একটি লজে চলতে থাকা সেক্স র‍্যাকেটে মুম্বই ও ভূপালের দুই যুবতীকে গ্রেফতার করে৷ এছাড়াও লজের ম্যানেজা ও অন্য এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়৷

- Advertisement -

ক্রাইম ব্রাঞ্চ সূত্রের খবর, চাওলা প্যালেস বিল্ডিংয়ের পঞ্চম তলে চলতে থাকা সেক্স র‍্যাকেটের পর্দাফাঁস করে পুলিশ রফিক রশিদ খান নামের এক দালাল ও লজের ম্যানেজার নারায়ণ শেঙ্বেকরকে গ্রেফতার করে৷

Advertisement ---
---
-----

Comments are closed.