‘রাখির দিনে পাকিস্তানি বোনকে মিস করি ‘

পাটনা: অনেকদিন যাওয়া হয়নি৷ কবে যে যাব তাও জানি না৷ রাখির দিনটা এলে পাকিস্তানি বোনকে খুবই মিস করি৷ বিষাদ মাখা গলায় এমনই জানিয়েছেন বিজেপির বিদ্রোহী নেতা তথা কিংবদন্তি অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা৷ বিহারি বাবুর মন্তব্য ছড়িয়েছে পাকিস্তানেও৷ সেই দেশ থেকেও তাঁর প্রতি রাখির শুভেচ্ছা বার্তা এসেছে৷ আর শত্রুঘ্ন বলছেন, ভারত-পাক সম্পর্ক ভালো হোক দ্রুত৷

শত্রুঘ্ন সিনহার পাতানো বোন থাকেন পাকিস্তানে৷ তিনি প্রয়াত পাক সেনা শাসক ও প্রেসিডেন্ট জিয়া উল হকের কন্যা জিয়ান৷ বর্ষীয়ান পাক মহিলা তাঁর ভারতীয় ভাইকে দেখার জন্য দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করে রয়েছেন৷ এবারের রাখি উৎসবেও পাঠিয়েছেন শুভেচ্ছা৷ কিন্তু কাছে থেকে দেখা হয়নি৷ এদিকে রাখি উৎসব উপলক্ষে শত্রুঘ্ন সিনহা জানিয়েছেন,পাকিস্তানে আগে অনেকবার গিয়েছি৷ কিন্তু কূটনৈতিক সম্পর্ক অবনতির কারণে অনেকদিন যাওয়া হয়নি৷ দ্রুত এই সব কাটিয়ে উঠুক দুই দেশ৷ আমি রাখির দিনে খুব মিস করি বোনকে৷

পড়ুন: শহিদ ভাইয়ের মূর্তিতে রাখি পরিয়েই দিনটা পালন করেন শান্তি

বিজেপির বিক্ষুব্ধ নেতাদের তালিকায় নাম লিখিয়েছেন শত্রুঘ্ন সিনহা৷ বিহারি বাবু এখন বিভিন্ন ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের প্রবল সমালোচনা করেন৷ ধারণা করা হচ্ছে, লোকসভা নির্বাচনের আগে তিনি দল ছাড়তে চলেছেন৷ সেক্ষেত্রে লালুপ্রসাদ যাদবের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার সুবাদে রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি)-তে তিনি যোগ দিতে পারেন৷ ইতি মধ্যে পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে দোষী সাব্যস্ত লালু জেলবন্দি৷ অসুস্থ বর্ষীয়ান নেতাকে দেখতে রাঁচি গিয়েছিলেন শত্রুঘ্ন৷ তারপরেই বেড়েছে জল্পনা৷

এদিকে নতুন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ইসলামাবাদ গিয়েছিলেন একসময়ের বিজেপি তথা বর্তমান কংগ্রেস নেতা নভজ্যোৎ সিং সিধু৷ পাকিস্তানে থাকা ক্রিকেট জীবনে ইমরান খান ও সিধু বহুবার মুখোমুখি হয়েছেন৷ সেই সম্পর্কের খাতিরেই সিধুকে আমন্ত্রণ করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ এদিকে সিধুর সফর নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে৷ এই ইস্যুতেও সিধুর পাশে দাঁড়িয়েছেন শত্রুঘ্ন সিনহা৷ তিনি জানিয়েছেন, দুই দেশের সম্পর্কের উন্নতি আবশ্যক৷

----
-----