গৃহবধূর নগ্ন মৃতদেহকে ঘিরে চাঞ্চল্য কুলপীতে

স্টাফ রিপোর্টার, বারুইপুর: গৃহবধূর নগ্ন মৃতদেহকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল কুলপী থানা এলাকার কচুবেড়িয়াতে। ওই গৃহবধূর নাম রুনা লাইলা খাঁ (৪১)৷ কুলপী থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ডায়মন্ড হারবার পুলিশ মর্গে পাঠিয়েছে। তাঁর মৃত্যুতে পরিবার ও এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে৷

রুনা লাইলা খাঁর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, তাদের নতুন বাড়ি কুলপী থানার কচুবেড়িয়া করিমপুর হাট থেকে বেশ কিছু দূরে৷ সেখানে তিনি প্রায় সন্ধ্যায় যেত৷ ঘটনার দিন রাতে তিনি যায়৷ কিন্তু অনেকটা সময় হয়ে গেলে তিনি বাড়ি ফেরে না৷ রুনা লাইলা খাঁয়ের ফিরতে দেরি হচ্ছে দেখে তাঁর স্বামী আলতাফ খাঁ খুঁজতে যায়৷

আরও পড়ুন: ভাইয়ের হাতে দাদা খুন

- Advertisement -

তখনই যাওয়ার পথে গ্রামের বাড়ি থেকে একটু দূরে বাঁশবনের কাছে স্ত্রীর জুতো পড়ে থাকতে দেখেন তিনি৷ এরপর তিনি লাইট নিয়ে খোঁজাখুঁজি করেন। কিছুটা দূরে তাঁকে নগ্ন অবস্থায় পুকুরের ধারে পড়ে থাকতে দেখেন তাঁর স্বামী। আলতাফ খাঁ রুনা লাইলা খাঁকে ওই অবস্থায় দেখে চিৎকার করতে শুরু করেন৷ তাঁর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। খবর দেওয়া হয় কুলপী থানায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷

রুনা লাইলার মৃত্যুর ঘটনায় পুলিশ অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। অন্যদিকে রুনা লাইলার মৃত্যু ঘিরে প্রতিবেশীদের কথায় ঘনীভূত হয়েছে রহস্য। প্রতিবেশীদের অভিযোগ গৃহবধূকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। তবে তাঁর পরিবার এই নিয়ে কোন মন্তব্য করতে চায়নি।

Advertisement
----
-----