পেপার মিলের বয়লারে পড়ে ৬ শ্রমিকের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটল উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটিতে৷ সেখানকার একটি পেপার মিলে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে৷ ওই কারখানার ব্রয়লারে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হল ছ’জন শ্রমিকের৷

নৈহাটি ইন্ডিয়ান পেপার পাল্পস কারখানা সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ৮টা নাগাদ দুর্ঘটনাটি ঘটে৷ ব্রয়লারে শ্রমিকরা কাগজের মন্ড গরম করছিলেন৷ সেই সময় ৬জন শ্রমিক ব্রয়লারে পড়ে যান৷ সেখানেই ৬ জন শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঝলসে যায়৷

আরও পড়ুন: পুরপ্রধানের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার তিন

- Advertisement -

এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই শ্রমিকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে৷ সঙ্গে সঙ্গে দমকল ও নৈহাটি থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়৷ পুলিশ যায় ঘটনাস্থলে৷ দমকলও পৌঁছয়৷ তারা পৌঁছে ব্রয়লার থেকে অগ্নিদগ্ধ শ্রমিকদের দেহ উদ্ধারের চেষ্টা শুরু করে৷ গোটা ঘটনায় নৈহাটি হাজিনগর এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কারখানার সামনে সঙ্গে সঙ্গে বহু মানুষ ভিড় জমান৷ শ্রমিকদের পরিবারের সদস্যরা আতঙ্কিত হয়ে ছুটে আসেন৷

আরও পড়ুন: শোভনদেবের সার্বিক জোট তত্ত্ব নিয়ে প্রশ্ন খোদ তৃণমূলের অন্দরে

এই ঘটনার জেরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে ওই কারখানার উৎপাদন প্রক্রিয়া। শ্রমিকদের অসতর্কতার জন্যই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে পুলিশের অনুমান। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছান ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিং। তিনি বলেন, ‘‘একটা দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রশাসন তৎপরতার সঙ্গে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।’’ দুর্ঘটনার জেরে ওই কারখানাটি ঘিরে রেখেছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। কারখানার ভিতরে কাউকেই প্রবেশ করতে দিচ্ছে না পুলিশ।

আরও পড়ুন: রঙিন জীবনে অভ্যস্ত বিজয় মালিয়ার ‘পিঙ্কি’কে চিনে নিন

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রথমে গুরুতর জখম অবস্থায় দু’জনকে উদ্ধার করা হয়৷ তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় নদীয়ার কল্যাণীর জওহরলাল নেহরু হাসপাতালে৷ সেখানেই তাঁদের মৃত বলে ঘোষণা করা হয়৷ মৃতদের নাম উদয় রাজ (২৮) ও মিঠুন প্রজাপতি (৩১)৷ জানা গিয়েছে, বয়লারে নাজিম, বিজয় বক্সি, রবিশঙ্কর, অশোক বড়াল নামে আরও চার পড়ে যায়৷ ভোর রাতে তাদের উদ্ধার করা হয়৷

Advertisement
---