ভুবনেশ্বর: বয়স মাত্র ছয়। আর এই বয়সেই সাহসিকতার জন্য পুরস্কার পাচ্ছে ওড়িশার মেয়ে মমতা দলাই। যেমন তেমন কাজ নয়, আস্ত কুমীরের সঙ্গে লড়াই করে জয়ী হয়েছে সে। তার বন্ধু সাত বছরের অসন্তী দলাইকে কুমীরের হাত থেকে উদ্ধার করেছে মমতা। এবার প্রজাতন্ত্র দিবসেই পুরস্কার পাচ্ছে সেই মেয়ে।

ওড়িশার কেন্দ্রপাড়া জেলার বাসিন্দা মমতা। ২০১৭-র ৬ এপ্রিলের ঘটনা। আর পাঁচটা দিনের মতই বন্ধুর সঙ্গে পুকুরে স্নান করতে নেমেছিল সে। আচমকা এক কুমীরের আক্রমণ। আস্ত কুমীর কে দেখলে বড়রাও ভয় পেয়ে যাবে, আর সে তো বাচ্চা মেয়ে। তাতে কি! বয়সে ছোট হলেও সাহসিকতায় সে একেবারে অনন্য। কুমীর অসন্তীকে টেনে নিয়ে যাচ্ছে দেখেই একটুও ভয় না পেয়ে এগিয়ে যায় সে। অসন্তীর হাত ধরে টানতে শুরু করে। তার চীৎকার আর টানাটানিতে ঘাবড়ে যায় কুমীরও। আচমকা ছেড়ে দিয়ে জলে ডুব মারে সে। কোনোরকমে অসন্তীকে নিয়ে পাড়ে উঠে আসে মমতা।

Advertisement

মমতা প্রমাণ করে দিয়েছে যে সাহসের কোনও বয়স হয় না। যদিও অসন্তী আহত হয়েছে। তবু তাকে বাঁচানোর কৃতিত্ব পুরোটাই মমতার। পরে বন দফতর এসে কুমীরটিকে নিয়ে যায়। এবছর ‘ন্যাশনাল ব্রেভারি অ্যাওয়ার্ড’-এ ১৮ জনের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছে মমতা। পুরস্কার তুলে দিতে উপস্থিত থাকবেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ সহ আরও অনেকে।

----
--