মেলবোর্ন: আর মাত্র দিন পনেরো। তারপরই শাপমুক্তি। স্যান্ডপেপার গেট কান্ডে নির্বাসনমুক্ত হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে চলেছেন স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। তবে নির্বাসনমুক্ত হওয়ার পরও জাতীয় দলের আসন্ন পাকিস্তান সিরিজের জন্য শেষ দু’টি ম্যাচে রাখা হয়নি দলের প্রাক্তন অধিনায়ক এবং তাঁর ডেপুটিকে। তাই বিশ্বকাপের আগে মহড়া হিসেবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগে ব্যাটে শান দেবেন এই দুই ক্রিকেটার।

কিন্তু ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে যোগদানের আগে জাতীয় দল এবং কোচিং স্টাফেদের সঙ্গে দুবাইতে আলোচনায় বসবেন এই দুই ক্রিকেটার। অবশ্যই বিশ্বকাপ সংক্রান্ত স্ট্র্যাটেজি বা পরিকল্পনাই হবে সেই আলোচনার বিষয়বস্তু।

এই মুহূর্তে ভারতে সফররত অস্ট্রেলিয়া দল বিশ্বকাপের আগে চূড়ান্ত মহড়া সারবে আরব আমিরশাহির মাটিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। পাঁচ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচটি শারজায় আগামী ২২ মার্চ। উল্লেখ্য, আগামী ২৯ মার্চ নির্বাসনমুক্ত হতে চলেছেন এই দুই অজি তারকা। কিন্তু নির্বাসনমুক্ত হওয়ার পর পাকিস্তান সিরিজের শেষ দু’টি ম্যাচের জন্য দুই ক্রিকেটারকে দলে রাখেনি অস্ট্রেলিয়া থিঙ্ক-ট্যাঙ্ক।

কিন্তু পাকিস্তান সিরিজে না থাকলেও বিশ্বকাপে এই দুই ক্রিকেটারকে রেখেই ঘুঁটি সাজাচ্ছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। আর সেই কথা মাথায় রেখেই পাকিস্তান সিরিজ শুরুর আগে দুবাইতে এই দুই ক্রিকেটারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছে অস্ট্রেলিয়া টিম ম্যানেজমেন্ট।

ভারতে মাটিতে আগামী ২৩ মার্চ শুরু হচ্ছে আইপিএল। যেখানে রাজস্থান রয়্যালস ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন স্টিভ স্মিথ এবং সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে মাঠে নামবেন ডেভিড ওয়ার্নার। তার আগে বর্তমানে পুরনো ফর্ম ফিরে পেতে নেটে ঘাম ঝরাচ্ছেন স্মিথ। অস্ত্রোপ্রচারের পর কনুইয়ের চোট সারিয়ে অনেকটাই সুস্থ তিনি।

মঙ্গলবার নিউ সাউথ ওয়েলসে নেটে অনুশীলনের পর স্মিথ সাংবাদিকদের জানান, ‘কনুইয়ের চোট সারিয়ে এই প্রথম নেটে ফাস্ট বোলিং অনুশীলন করছি। অনুশীলন বেশ কিছুদিন শুরু করলেও আইপিএলের কথা মাথায় রেখে বোলিং মেশিনে প্র্যাকটিস করা শুরু করলাম। আইপিএলে ফিল্ডিং করার সময় নিয়মিত থ্রো করা শুরু করব। তাতে করে বিশ্বকাপের আগে নিজেকে সম্পূর্ণ ফিট করে তুলতে পারব বলেই আশা।’