সাপে কাটা রোগীকে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ মেমারিতে

ছবি:প্রতীকী

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: সাপে কাটা রোগীর চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ৷ আঙুল উঠল মেমারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে৷ মৃতের পরিবারের অভিযোগ, গ্রামের মানুষ ধীরে ধীরে সতর্ক হচ্ছেন৷ ওঝা, গুনীন ছেড়ে ডাক্তারের কাছে যাচ্ছেন৷ অথচ চিকিৎসক কিংবা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একরকমভাবে দায়িত্ব ঝেড়ে ফেললে মানুষের কী বা করার৷

মেমারি থানার বাঁকপুরের বাসিন্দা অন্নপূর্ণা মণ্ডল (৫৫)৷ গত বুধবার মাঠে ঘাস কাটতে গিয়েছিলেন৷ সেখানেই তাঁর ডান পায়ে ছোবল মারে সাপ৷ বাড়িতে যেতেই বিলম্ব না করে পরিবারের লোকজন তাঁকে নিয়ে যায় মেমারি গ্রামীণ হাসপাতালে৷

- Advertisement -

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, বহির্বিভাগে চিকিৎসার পর অন্নপূর্ণাদেবীকে ছেড়ে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ সাপ কামড়েছে এমন আশঙ্কার কথা জানানোর পরও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তেমন গুরুত্ব দেয়নি বলে অভিযোগ৷ বাড়িতে না পাঠিয়ে যদি হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতেন তাহলে অন্নপূর্ণাদেবী প্রাণে বেঁচে যেতেন বলে দাবি পরিবারের৷

এদিকে বাড়ি ফিরে আসার পর শুক্রবার ওই মহিলা আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রবিবার ভোরে মৃত্যু হয় তাঁর৷ এ বিষয়ে মেমারির বিএমওএইচ ধীরাজ রায় জানিয়েছেন, ‘‘খাতাপত্র না দেখে এ বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারব না৷’’

Advertisement
---