মুম্বই : কন্ট্রোভার্সিতে প্রায়ই নাম জড়ায় এক্স বিগ বস প্রতিযোগী সোফিয়া হায়াতের৷ কখনও বেফাঁস মন্তব্যের কারণে, কখনও স্বামীর সঙ্গে অন্তরঙ্গতার ভিডিও সোশ্যাল সাইটে আপলোড করে শিরোনামে উঠে এসেছেন এই মডেল-অভিনেত্রী সোফিয়ার৷

সম্প্রতি তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের একটি পোস্ট ঘিরে জল্পনা ওঠে তুঙ্গে৷ সকলের কৌতূহল রীতিমতো বাড়তে শুরু করে সেই পোস্ট নিয়ে। যেখানে তিনি তাঁর স্বামী ভ্ল্যাড স্ট্যানসিউকে মিথ্যুক, প্রতারক বলে চিহ্নিত করেছেন৷ যদিও পোস্টটির পর বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে তিনি বিস্তারিতভাবে জানান ভ্ল্যাডকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার কারণ৷

ভ্ল্যাড স্ট্যানসিউ বিয়ের আগে সোফিয়াকে জানিয়েছিলেন যে তিনি একজন ইন্টিরিয়র ডিজাইনার, যা সম্পূর্ণ মিথ্যে বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী৷ এই সমস্যার সূত্রপাত হয় কয়েক মাস আগে৷ ভ্ল্যাডের কিছু আচার-আচরণে খটকা লাগে তাঁর৷ স্বামীকে তাঁর পার্স থেকে টাকা এবং গয়না চুরি করতে ধরে ফেলেন তিনি৷

আরও পড়ুন: জন্মদিনে একেবারে তাক লাগিয়ে দিলেন অনুষ্কা

সোফিয়া, ভ্ল্যাডকে খুবই ভালোবাসতেন বলে বাড়িতে মিথ্যে বলেছিলেন ভ্ল্যাডের আর্থিক অবস্থা বেশ ভালো৷ কিন্তু একেবারেই তেমনটা ছিলনা৷ তাঁর কাছে টাকা পয়সা না থাকা সত্ত্বেও সোফিয়া তাঁকে বিয়ে করতে রাজি হয়৷ তাঁর প্রতিটি দায়িত্ব নিতেও প্রস্তুত হন৷ তাই স্বামীর চুরির স্বভাব চোখে পড়লেও সেগুলিকে তেমন গুরুত্ব না দিয়ে এগিয়ে যান সোফিয়া৷ পরবর্তীকালে তাঁর নজরে আসে সাংঘাতিক কিছু ঘটনার ওপর৷ অভিনেত্রী বলেন, ভ্ল্যাড নাকি সোফিয়ার লিগাল পেপারস চুরি করে তাঁর বিজনেস হাতবারও তালে ছিলেন৷

আরও পড়ুনগানের জগতের মান্না দে সম্পর্কে অজানা কথা

এসব সমস্যার মধ্যে আরও একটি দুর্ঘটনার সম্মুখীন হন সোফিয়া৷ তাঁর মিসক্যারেজও হয়েছে বলে জানান তিনি৷ তিন মাসের মাথায় গর্ভপাত হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি৷ অভিনেত্রীর অভিযোগ, অনুযায়ী তাঁর স্বামী তাঁকে ধর্ষণও করেছেন৷ ভ্ল্যাড যে এত বড় প্রতারক তা জানার পরই বাড়ি থেকে বের করে দেন সোফিয়া৷ এখন সে কোথায় বা কী করছে সেই সম্বন্ধে জানতেই চান না নায়িকা৷

----
--