১২ ইঞ্চি গভীর জলেও চলবে এই ইঞ্জিন

মুম্বই: সাধারণ লোকোমোটিভ ফেল৷ জল জমলেই বন্ধ হয়ে যায় মুম্বইয়ের ট্রেন চলাচল৷ এবার তার সমাধান আসতে চলেছে৷ একটি বিশেষ ইঞ্জিন তৈরি করে ফেলেছে সেন্ট্রাল রেলওয়ে৷

বিশেষ প্রযুক্তিতে তৈরি এই রেলইঞ্জিন অনায়াসেই চলতে পারে জলে ডুবে থাকা লাইনের উপর দিয়ে। ওয়াটারপ্রুফ লোকোমোটিভ ইঞ্জিন ১২ ইঞ্চি গভীর জলেও অনায়াসে চলে।

প্রবল টানা বর্ষণে বিপর্যস্ত মুম্বই। বৃষ্টির জল জমে গিয়েছে রেললাইনে। থমকে গিয়েছে পরিষেবা। এই পরিস্থিতি থেকে মুম্বইবাসীকে রেহাই দিতে পারে এমন একটি ট্রেন ইঞ্জিন তৈরি করে ফেলেছে সেন্ট্রাল রেলওয়ে। সাধারণ ৪ ইঞ্জি জল রেললাইনে জমলেই লোকমোটিভ ইঞ্জিন কাজ করা বন্ধ করে দেয়। কিন্তু নতুন এই লোকমোটিভ ইঞ্জিনে সেটা হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

- Advertisement -

সেন্ট্রাল রেলওয়ের মুম্বই ডিভিশনের ম্যানেজার এস কে জৈন জানিয়েছেন, রেল লাইনে চার ইঞ্চি জল জমে গেলেই লোকোমোটিভ ইঞ্জিনের ভেতরে জল ঢুকে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। সেকারণেই বন্ধ হয়ে যায় পরিষেবা। আর এবার যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে মুম্বইয়ে তাতে কোনওভাবেই লোকাল ট্রেন চালানো সম্ভব নয়।

সেকারণেই বিকল্প ব্যবস্থার চিন্তাভাবনা শুরু করেছিল রেল। তাতেই তৈরি হয় এই নতুন প্রযুক্তির লোকোমোটিভ ইঞ্জিন। সেখানে মোটরটি ধাতুর মোড়কে সুরক্ষিত থাকবে। যাতে কোনওভাবেই জলে নষ্ট হতে না পারে রেল ইঞ্জিন। তার ব্যবস্থা করতেই এই পদ্ধতি নেওয়া হয়েছে৷

ইতিমধ্যেই ট্রায়াল রান হয়ে গিয়েছে। তাতে সফলও হয়েছে ইঞ্জিনটি। কুরলা লোকোমোটিভ শেডে রাখা আছে ইঞ্জিনটি।

টানা বৃষ্টিতে স্তব্ধ মুম্বই৷ বেশিরভাগ এলাকাতে জল জমে গিয়ে দৈনন্দিন জীবনযাত্রা ব্যহত৷ দুর্ভোগ এড়াতে বন্ধ স্কুল-কলেজ৷ মঙ্গলবার মুম্বইয়ের সব স্কুল বন্ধ থাকবে বলে জানা গিয়েছে৷ পাশাপাশি ভারি বৃষ্টিপাতে ট্রাফিক জ্যামেও নাকাল অফিসযাত্রীরা৷

জানা গিয়েছে, ওয়াডালা রেলওয়ে স্টেশনের রেললাইন বর্তমানে জলের তলায়৷ এর ফলে ট্রেনযাত্রীরা দুর্ভোগের মুখে৷ মুম্বইয়ের অন্যতম লাইফলাইন এই ট্রেন পরিষেবা। প্রবল বৃষ্টির জেরে তা থমকে রয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় রেলট্র্যাকে জল দাঁড়িয়ে গিয়েছে৷ সিওন, নাল্লাসোপারা, বিরারে স্তব্ধ ছিল রেল চলাচল। তবে সেন্ট্রাল মুম্বইয়ে ট্রেন চলাচল খানিকটা স্বাভাবিক।

জানা গিয়েছে, রেলট্র্যাক ছাপিয়ে জল অনেকটা উপরে উঠে যাওয়ায় নাল্লাসোপারার ফার্স্ট লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে ভাসাই ও ভিরারের মধ্যের ট্রেন চলাচল। যাত্রীদের সুবিধার্থে হেল্পলাইন পরিসেবা চালু করেছে পশ্চিম রেলওয়ে।

ভারতীয় মৌসম ভবন জানিয়েছে, আগামী ১০ থেকে ১৩ জুলাই গ্রেটার মুম্বই, থানে, রায়গড় এবং পালগড়ে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

Advertisement ---
---
-----