কলকাতা: শেষমেশ সাসপেন্ড হলেন ধর্ষণে অভিযুক্ত টেবিল টেনিস তারকা সৌম্যজিৎ ঘোষ৷ফলে আসন্ন কমনওয়েলথ গেমসে অংশ নিতে পারবেন না এই বাঙালি খেলোয়াড়৷ শুক্রবার এক্সিকিউটিভ বোর্ডের বৈঠকে এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে টেবিল টেনিস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (টিটিএফআই)৷ সৌম্যজিতের বদলে কমনওয়েলথ গেমসের দলে জায়গা পেলেন শানিল শেট্টি৷ ৪ এপ্রিল থেকে অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টে শুরু হচ্ছে ২১তম কমনওয়েলথ গেমস৷

আরও পড়ুন: ‘কমনওয়েলথের আগে সৌম্যজিতকে ফাঁসানো চেষ্টা’

Advertisement

শুক্রবার বৈঠকের পর টিটিএফআই-এর তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘টেবিল টেনিস ফেডারেশনের একজিকিউটিভ বোর্ড সৌম্যজিৎ ঘোষ সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নিল৷ তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে৷ পুলিশি তদন্ত ও আদালতের রায় বেরনো পর্যন্ত সৌম্যজিৎ কোনও আন্তর্জাতিক ও দেশের ম্যাচে অংশ নিতে পারবে না৷’

আরও পড়ুন: অন্তঃসত্ত্বা নাবালিকা প্রণয়ীর গর্ভপাত করিয়েছিলেন সৌম্যজিৎ

বছর চব্বিশের অর্জুন পুরস্কার প্রাপ্ত ভারতীয় টেনিস তারকার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার ধর্ষণ ও ষড়যন্ত্রের মামলা দায়ের করেন বারাসতের ১৮ বছর এক তরুণী৷ তার পরই নড়েচড়ে বসে টিটিএফআই৷ শিলিগুড়ির এই খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে আইপিসি ৩৭৬ (ধর্ষণ), ৪১৭( প্রতারণা), ১২০বি (অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র) এবং পকসো আইনের ৪ নম্বর ধারায় (নাবালিকার যৌন নির্যাতন) মামলা দায়ের করা হয়৷

আরও পড়ুন: ধর্ষণের অভিযোগ বাংলার অর্জুন খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে

শুক্রবার বৈঠকরে ধর্ষণে অভিযুক্ত খেলোয়াড়কে কমনওয়েলথ গেমস থেকে বহিষ্কৃত করে জাতীয় টেবিল টেনিস ফেডারেশন৷ টিটিআইএফ-এর তরফে এদিন আরও জানানো হয়, সৌম্যজিতের বিরুদ্ধে এফআইআর এবং মিডিয়া রিপোর্ট দেখে ওকে সাময়িকভাবে বহিষ্কৃত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ এ মুহূর্তে কমনওয়েলথ গেমেসের জন্য জার্মানিতে ট্রেনিং করছেন সৌম্যজিৎ৷ কিন্তু গোল কোস্টে অংশ নেওয়া হচ্ছে না লন্ডন ও রিও অলিম্পিকে অংশা নেওয়া বাঙালি টেবিল টেনিস খেলোয়াড়৷

----
--