লন্ডন: বিরাট কোহলিদের চলতি ইংল্যান্ড সফরে বিশেষজ্ঞ হিসেবে ম্যাচ বিশ্লেষণ করছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়৷ এজবাস্টন টেস্ট হেরে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ০-১ পিছিয়ে থেকে লর্ডস টেস্টে নামবে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ সিরিজের প্রথম টেস্টের পর সৌরভের নামে ইনস্টাগ্রামে তাঁর ছবি পোস্ট করা হয়৷ কিন্তু সেটা যে তাঁর ফেক প্রোফাইল তা পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক৷

আরও পড়ুন: কোহলিকে বিয়ে করতে চাওয়া ব্রিটিশ তরুণীর সঙ্গে লাঞ্চে তেন্ডুলকর

তাঁর ফেক ইনস্টাগ্রাম পোস্ট নিয়ে সৌরভ বলেন, ‘আমার ইনস্টাগ্রাম পেজটা ফেক৷ দয়া করে এখান থেকে কোনও কোট নিয়ে খবর করবেন না৷ আমি ইতিমধ্যেই ইনস্টাগ্রামে এ নিয়ে রিপোর্ট করেছি৷’ প্রথম টেস্টে জয়ের কাছে পৌঁছেও হার হজম করছে বিরাটবাহিনী৷ তার পর ভারতীয় দল নির্বাচন নিয়ে সৌরভের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে সমালোচনা করা হয়৷ ১৯৪ রান তাড়া করে ১৬২ রানে শেষ হয়ে যায় ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের লড়াই৷ ক্যাপ্টেন কোহলি আউট হওয়ার পরই ভারতের জয়ের স্বপ্ন কর্পূরের মতো উবে যায়৷

এজবাস্টনে অপ্রত্যাশিতভাবে দলের তিন নম্বর ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পূজারাকে খেলায়নি ভারতীয় থিঙ্কট্যাঙ্ক৷ প্রথম টেস্টে তিন নম্বরে ব্যাটিং করে চূড়ান্ত ব্যর্থ লোকেশ রাহুল৷ দুই ইনিংসে তাঁর সংগ্রহ মাত্র ২১ রান৷ ভারতীয় ইনিংসে ক্যাপ্টন কোহলি ছাড়া কেউ ব্যাটে সফল হয়নি৷ প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি (১৪৯) এবং দ্বিতীয় ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরি (৫১) করেন বিরাট৷

আরও পড়ুন: রিক্সাওয়ালার ছেলে জেতালেন ভারতকে

এজবাস্টনে ভারতের হারের পর সৌরভের ইনস্টাগ্রাম পেজে মুরলী বিজয়, অজিঙ্ক রাহানের দায়বদ্ধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়৷ পাশাপাশি কোহলি কোনও পরীক্ষানিরীক্ষায় যেতে চাননি বলে মন্তব্য করা হয়৷ পোস্ট লেখা হয়েছিল, টেস্ট ম্যাচ জিততে হলে প্রত্যাকেই রান করতে হবে৷ বিজয় ও রাহানের আরও দায়বদ্ধতা দেখানো উচিত ছিল৷ কারণ ওরা এই পরিবেশে আগে খেলেছে৷ এই হারের জন্য ক্যাপ্টেনের কোনও দোষ নেই৷ ম্যাচ হারলে ক্যাপ্টেনের সমালোচনা হবেই৷ আর জিতলে অভিনন্দন কুড়াবে এটাই স্বাভাবিক৷ পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এটা ছিল প্রথম টেস্ট৷ সিরিজে প্রত্যাবর্তনের ক্ষমতা রয়েছে কোহলির দলের৷’

আরও পড়ুন: জাতীয় দলে প্রতিভাবানদের পক্ষে সওয়াল সচিনের

--
----
--