বর্ধমানে স্থানীয় প্রতিভা তুলে ধরার বার্তা ক্রীড়ামন্ত্রীর

বর্ধমান: বাইরে থেকে নামীদামী শিল্পীদের নিয়ে এসে নানাবিধ অনুষ্ঠান করা নয়, পুরসভার উদ্যোগে পূর্ব বর্ধমানের সর্ববৃহৎ এই উত্সবে স্থানীয় পুর এলাকার নাচ, গান কিংবা ব্রান্ডের উদীয়মান শিল্পীদের নিয়ে প্রতিযোগীতা মূলক অনুষ্ঠান করা দরকার। আর এভাবেই বর্ধমান থেকে নানা শিল্পীদের তুলে ধরতে হবে যাতে তারা একদিন রাজ্য তথা ভারতবর্ষের মুখ উজ্জ্বল করতে পারে। মঙ্গলবার বর্ধমান পৌর উত্সবের দ্বিতীয় দিনে হাজির হয়ে একথা বলে গেলেন রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

এদিন তিনি প্রথমে নাদনঘাটের বড়কোবলায় যান খালবিল উত্সবে। সেখান থেকে তিনি আসেন পৌর উত্সবে। পরে তিনি বর্ধমানের অরবিন্দ স্টেডিয়ামে ৪৪তম সাব জুনিয়র ভলিবল প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানেও হাজির হন। পৌর উত্সবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এদিন নোট বাতিল এবং জিএসটির কুফলের প্রসঙ্গ তুলে ধরেন।

আরও পড়ুন- উন্নয়নে অসহযোগিতা করছে তৃণমূল: বাবুল সুপ্রিয়

- Advertisement -

অরূপ বাবু এদিন বলেন, গত বছর নোট বাতিলের জেরে বিভিন্ন ব্যবসায় মন্দা দেখা দিয়েছিল। এবছর নোট বাতিলের জেরের পাশাপাশি জিএসটি ব্যবসাদারদের সমস্যা তৈরি করে দিয়েছে। সমস্যা তৈরি করে দিয়েছে ক্রেতাদের মধ্যেও। তিনি বলেন, এব্যাপারে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী লড়াই করছেন। এদিন তিনি সকলকেই এই লড়াইয়ে পাশে থাকার ডাকও দেন। এবছরও পৌর উত্সবে আসা বিভিন্ন স্টলগুলি ফাঁকা থাকায় তিনি বলেন, বহু ব্যবসাদারই এখন আর আসতে চাইছে না। উল্লেখ্য, এদিন পৌর উত্সবে অরূপ বিশ্বাসের পাশাপাশি বিধায়ক তথা বর্ধমান উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান রবি রঞ্জন চট্টোপাধ্যায় হাজির ছিলেন।

এছাড়াও হাজির ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার কুণাল আগরওয়াল, পৌরপতি ডা. স্বরূপ দত্ত, কাউন্সিলার খোকন দাস প্রমুখরাও। অপরদিকে, এদিন অরবিন্দ স্টেডিয়ামে ভলিবল প্রতিযোগিতায় এসে খেলা চালু থাকায় তিনি কোনও বক্তব্যই রাখেননি। অর্জুন ও দ্রোণাচার্য পুরষ্কার প্রাপক জি ই শ্রীধরণকে সম্বর্ধনা দেন অরূপ বাবু। এছাড়াও ৪জন বিধায়ককেও সম্বর্ধনা জানানো হয়। পরে এদিন বাংলার মেয়েদের সঙ্গেও তিনি কথা বলেন। তাদের উত্সাহ দিতে তিনি এদিন বাংলার মেয়েরা জয়ী হলে পুরষ্কৃত করা হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়ে যান।

অন্যদিকে, এই ধরণের প্রতিযোগীতা গুলি সাধারণত ইন্ডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হলেও বর্ধমানে কোনো ইন্ডোর স্টেডিয়াম না থাকা প্রসঙ্গে তিনি এদিন জানান, পুরসভা এব্যাপারে কোনো প্রস্তাব দিলে রাজ্য সরকার তা বিবেচনা করে দেখবে। অরবিন্দ স্টেডিয়ামে এদিন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে হাজির ছিলেন পুলিশ সুপার কুণাল আগরওয়াল, উত্তম সেনগুপ্ত, উজ্জ্বল প্রামাণিক প্রমুখরাও।

Advertisement
---