মীরপুর: টুর্নামেন্টের প্রথম তিনটি ম্যাচে একতরফা আধিপত্য দেখালেও ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে ব্যর্থ বাংলাদেশ৷ লিগের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে ১০ উইকেটে হারতে হয়েছিল মাশরাফি মোর্তাজাদের৷ এবার ত্রি-দেশীয় একদিনের সিরিজের ফাইনালেও সিংহলিদের কাছে বিধ্বস্ত হল টাইগাররা৷

আরও পড়ুন: সামির পাঁচ উইকেটে দুরন্ত জয় কোহলিদের

শের-ই-বাংলায় খেতাবি লড়াইয়ে টসে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় শ্রীলঙ্কা৷ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যনরা ধারাবাহিকতা দেখালেও লোয়ার মিডলঅর্ডার ও টেল এন্ডাররা ক্রিজে থিতু হতে না পারায় শ্রীলঙ্কা ৫০ ওভারে ২২১ রানে অলআউট হয়ে যায়৷ উপুল থরঙ্গা ৫৬, কুশল মেন্ডিস ২৮, নিরশন ডিকওয়েলা ৪২ ও দীনেশ চাঁদিমল ৪৫ রান করেন৷

বাংলাদেশের হয়ে ৪৬ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট নিয়েছেন রুবেল হোসেন৷ ২৯ রানে দু’উইকেট মুস্তাফিজুর রহমানের৷ একটি করে উইকেট দখল করেন মেহেদি হাসান মিরাজ, মাশরাফি মোর্তাজা ও মহম্মদ সঈফুদ্দিন৷

আরও পড়ুন: নিলামে কাদের দলে নিল কলকাতা নাইট রাইডার্স

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ ৪১.১ ওভারে ১৪২ রানে অলআউট হয়ে যায়৷ মাহমদুল্লাহ ৭৬ রানের অনবদ্য ইনিংস খেললেও বাকিদের ব্যর্থতায় বিফলে যায় তাঁর প্রচেষ্টা৷ মুশফিকুর (২২) ছাড়া মাহমদুল্লাহকে নূন্যতম সঙ্গ দিতে পারেননি কেউ৷ চোটের জন্য ব্যাট করতে নামেননি সাকিব আল হাসান৷

শ্রীলঙ্কার হয়ে শেহান মাদুশাঙ্কা আভিষেক ম্যাচেই হ্যাটট্রিক করেন৷ ৪০ তম ওভারের পঞ্চম ও ষষ্ঠ বলে তিনি আউট করেন মাশরাফি ও রুবেলকে৷ ৪২ তম ওভারে পুনরায় বল করতে এসে প্রথম বলেই তিনি তুলে নেন মাহদুল্লাহর উইকেট৷ ম্যাচে ২৬ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট নেন শেহান৷

আরও পড়ুন: আইপিএল নিলাম ২০১৮, সবচেয়ে দামি কারা

এছাড়া দুষ্মন্ত চামিরা ও আকিলা ধনঞ্জয়া ২টি করে উইকেট নিয়েছেন৷ শ্রীলঙ্কার ৭৯ রানে ম্যাচ জয়ের নায়ক নির্বাচিত হন থরঙ্গা৷ সিরিজ সেরার পুরস্কার পকেটে পোরেন থিসারা পেরেরা৷

----
--