শ্রী-হীন বলিউড আকাশে অম্লান চাঁদনি ছটা

মানসী সাহা: ভালবাসার ‘ঘর সংসার’ আজ যখন ‘সদমা’য় স্তব্ধ, তখন কে যেন ছন ছন শব্দ করে নেচে ওঠেন, ‘মেরে হাত মে নয় নয় চুড়িঁয়া হে, থোড়া ঠহেরো সজন মজবুরিয়া হে…’। ভালবাসার মানুষটির জন্য একটু কেন! ‘খুদা গাওয়া’ এ অপেক্ষা যুগ যুগ ধরে করছে প্রেমিক মন, একান্তে যে শুধু এটুকুই বলতে পারে, ‘কাটে নেহি কাটতে ইয়ে দিন ইয়ে রাত, ক্যহেনি থি তুমসে জো দিল কি বাত..।’ আসলে অপেক্ষার কোনও বাঁধাধরা সময় হয় না। কিন্তু কেউ কেউ অপরূপ সৌন্দর্যের ঐশ্বর্যে ধরে রাখতে পারে প্রেমিক মনের আকুতি। শ্রী-প্রেমীদের কাছে তাই শ্রীদেবীর কোনও বিকল্প নেই, থাকতে পারে না।

মাত্র চার বছর বয়সেই তিনি হয়তো শুনে ফেলেছিলেন ক্যামেরার ওপার থেকে ভেসে আসা অ্যাকশন, কাট-এর অলীক ডাক। স্কুলের করিডোরে ছুটতে ছুটতে, রাইমস শোনাতে শোনাতে সে ডাকে সাড়া দিয়েছিলেন তিনি। সে ডাক অমরত্বের। ‘ন্যায়নো মে সপ্না’ নিয়ে গ্ল্যামারের দুনিয়ায় এন্ট্রি নেন রূপ কি রানি। তবু ‘কলাকার’এর এ জীবনে একদিনে তো সিনে আকাশের ‘চাঁদনি’ হয়ে ওঠা হয়নি। আসলে পথের কাঁটায় পায়ে রক্ত না ঝরালে কী করেই বা অমরতার ইমারতে পৌঁছনো যায়!

ছবি: ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে

তৎকালীন বম্বে তখন জয়াপ্রদার বাজার। এন্ট্রি নেন তামিল অভিনেত্রী শ্রী। কিন্তু ইন্ডাস্ট্রির জমি তো আর গোলাপের লাড্ডু নয়, যে এক লহমায় হাতে চলে আসবে। কিন্তু কেউ কেউ পারেন। যেমন পেরেছিলেন শ্রীদেবী। রূপের ঐশ্বর্য আর অভিনয়ের গুনে আদায় করে নিয়েছিলেন তাঁর প্রাপ্য সম্মান। কিন্তু  শুরু দিকে তামিল, তেলেগু, মালায়ালম, আঞ্চলিক সিনেমা ছাড়া তাঁকে সেভাবে ব্যবহার করা হয়নি। অথচ তিনিই বলিউডের ইতিহাসে সুপারস্টার নামের তালিকায় প্রথম মহিলা সুপারস্টারের নাম লিখিয়েছিলেন। ‘হর কিসি কো নেহি মিলতা ইহা পেয়ার জিন্দেগি মে’ যিনি বলেন, তিনিও তো শুনিয়ে দেন, ‘তু মুঝে কবুল মে তুঝে কবুল’।

ছবি: ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে
- Advertisement -

কিছু মাস হল তিনি তারকাদের মহল থেকে দূরে এখন তারাদের মহলের বাসিন্দা। কিন্তু আজ যদি এখানে থাকতেন কেক কাটতেন, পরিবারের সঙ্গে হুল্লোড় করতেন, না জানি আরও কতো প্ল্যান থাকত। কিন্তু সেসব আজ শুধুই কল্পনা। ৫৫ বছর জন্মদিনের আগেই তিনি পঞ্চভূতে বিলীন। কিন্তু নায়িকাকে আঁকড়ে ধরে জন্মদিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে মুম্বইয়ের বান্দ্রার চ্যাপেল রোডের একটি বিল্ডিংয়ে শ্রীদেবীর ১৮ ফুট লম্বা একটি আবক্ষ মূর্তি তৈরি হচ্ছে। তবে ‘মম’-এর শ্রী নয়! মূর্তিতে ফুটে উঠবে নায়িকার নাইনটিসের লুক। ‘গুরুদেব’ ছবিতে অভিনেত্রীর যে লুক ছিল, তাইই মূর্তিতে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছেন শিল্পী রঞ্জিত দাহিয়া, কুনাল দাহিয়া, বিদিশা বিশ্বাস, আরুশু এবং রিচা।

আরও পড়ুন: দুই নায়িকা নিয়ে জানেন কীভাবে নাজেহাল হচ্ছেন দেব?

এদিকে শ্রী হীন আজ কাপুর ফ্যামিলি। স্মৃতির অ্যালবাম খুলে জাহ্নবী সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন, মায়ের সঙ্গে তোলা ছোটবেলার ছবি। বনি কাপুরের ট্যুইট, ‘কিংবদন্তিদের মৃত্যু হয় না। শ্রী সবসময় আমাদের সঙ্গে রয়েছে। এমন কোনও মুহূর্ত নেই যখন আমরা ওকে মিস করি না।’ পরিবার ছাড়াও আজ নায়িকার জন্মদিনে তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বলিউডের অন্যান্য অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও।

ছবি: ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে

এছাড়া শ্রীদেবীর জন্মদিন উপলক্ষে, তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের তরফ থেকে টিভিতে শ্রীদেবীর ছবি দেখানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সিনেমার লিস্টে রয়েছে, ‘মম’, ‘লমহে’, ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’, ‘ইংলিশ ভিংলিশ’, ‘সাদমা’, ‘চাঁদনি’র মতো ব্লকবাস্টার হিট সিনেমা।

Advertisement
---