জাতীয় সঙ্গীত অবমাননার অভিযোগ কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের বিরুদ্ধে

শ্রীনগর: বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে সমাবর্তন অনুষ্ঠান৷ অনুষ্ঠান চলাকালীন বেজে উঠল জাতীয় সঙ্গীত৷ সবাই উঠে দাঁড়িয়েছে৷ কিন্তু কয়েকজন পড়ুয়া তখনও বসে আসনে৷ তাদের এই আচরণের ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে বিতর্ক৷

আরও পড়ুন: সুনন্দা পুষ্কর হত্যা মামলায় আদালতের রায়ে সাময়িক স্বস্তিতে শশী

শ্রীনগরের শের-ই-কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানের ভিডিও সেটি৷ ৪ জুলাই সমাবর্তন অনুষ্ঠানের ওই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে এমন দৃশ্য৷ বেশিরভাগ ছাত্র ছাত্রী জাতীয় সঙ্গীত বাজার সময় যেখানে দাঁড়িয়ে রয়েছে, সেখানে হাতে গোনা তিন চারজন ছেলে আসনে বসে৷ ভিডিওটি ভাইরাল হতে বেশি সময় লাগেনি৷ এরপরই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে প্রবল বিতর্ক৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: যোগীকে জিনস পরার পরামর্শ আজম খানের

যদিও ওই ভিডিওকে ভুয়ো বলে দাবি করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ৷ এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে সেই বিবৃতি প্রকাশও করা হয়েছে৷ বিবৃতি দিয়ে কলেজের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, জাতীয় সঙ্গীতের যে ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে সেটি ভুয়ো৷ অডিটোরিয়ামে জাতীয় সঙ্গীত বাজানোর পর সকলে উঠে দাঁড়িয়েছিল৷

জাতীয় সঙ্গীত বাজার সময় উঠে না দাঁড়ানোর জেরে জম্মু কাশ্মীরে বহু বিবাদ, হাতাহাতি অতীতেও হয়েছে৷ গত বছর নভেম্বরে কাশ্মীরের রাজৌরিতে বাবা গুলাম শাহ বাদশা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই পড়ুয়া একই কান্ড ঘটায়৷ জাতীয় সঙ্গীত অবমাননা করায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷ চলতি বছর মার্চ মাসে কোচির এক কলেজ থেকে এসএফআই নেতাকে বহিস্কার করা হয় জাতীয় সঙ্গীতের অবমাননা করায়৷

Advertisement ---
---
-----