শহরবাসীকে জলযন্ত্রনা থেকে মুক্ত করতে নয়া উদ্যোগ

ছবি:প্রতীকী

স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: শহরবাসীকে জমা জলযন্ত্রনা থেকে মুক্ত করতে নিকাশি ব্যাবস্থাকে ঢেলে সাজাতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য সরকার৷ উত্তর ২৪ পরগণার পানিহাটি, খড়দহ, বিলকান্দা, উত্তর দমদম সহ বিভিন্ন এলাকার জন্য নতুন প্রকল্পের সূচনা করল রাজ্য সরকারের পূর্তদফতর৷

আরও পড়ুন: ছাপ্পান্ন ভোগে জগন্নাথদেবের আরাধনা বাঁকুড়ায়

জানা গিয়েছে, শুক্রবার দুপুরে রাজ্যের পূর্তদফতরের আর্থিক সহযোগিতায় পানিহাটিতে শিলান্যাসের মাধ্যমে নতুন নিকাশি নালা তৈরির কাজের সূচনা করা হয়। বিধানসভার মুখ্য সচেতক তথা পানিহাটি বিধানসভার বিধায়ক নির্মল ঘোষ এবং উত্তর ২৪ পরগনার জেলা শাসক অন্তরা আচার্য্য এই নিকাশি নালার কাজের শুভ শিলান্যাস করেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ, বারাকপুরের মহকুমা শাসক পীযূষ কান্তি গোস্বামী, পানিহাটি পুরসভার চেয়ারম্যান স্বপন ঘোষ সহ রাজ্য পূর্ত দফতরের পদস্থ ইনজিনিয়াররা।

- Advertisement -

ফি বছর বর্ষায় জলবন্দী হয়ে পড়েন পানিহাটি, খড়দহ, উত্তর দমদম, বিলকান্দা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার কয়েক লক্ষ নগরবাসী। জলবন্দী দশা থেকে নগরবাসীকে মুক্ত করতে ও রাজ্যে বর্ষা ভয়ানক রূপ নেওয়ার আগেই নতুন রূপে নিকাশি নালা তৈরির কাজ শুরু করে দিল রাজ্য পূর্ত দফতরের কর্মীরা। এই প্রকল্পটিতে খরচ হবে প্রায় ৩৫ কোটি টাকা। প্রায় ৭ কিমি দীর্ঘ নতুন নিকাশি নালা তৈরি হবে পানিহাটি শহর জুড়ে।

আরও পড়ুন: চলে গিয়েছে বন্ধু, দুদিন খাবার ছুঁল না সঙ্গী ঘোড়া, কুকুরগুলো

বিধানসভার মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ বলেন, ‘এই নতুন নিকাশি নালা তৈরি হলে পানিহাটি, খড়দহ, উত্তর দমদম বিধানসভার একাংশ সহ বিলকান্দা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার অন্তত ৬ লক্ষ মানুষ উপকৃত হবে। দ্রুত শেষ করা হবে এই নিকাশি প্রকল্পের কাজ। আসন্ন বর্ষার আগেই যাতে এই প্রকল্পের কাজ শেষ করা যায় সেই চেষ্টাই করা হবে।’

জেলা শাসক অন্তরা আচার্য্য বলেন, ‘রাজ্য সেচ দফতর প্রথমে এই নিকাশি ব্যাবস্থার পরিকল্পনা করেছিল৷ পরে পূর্ত দফতর প্রকল্পের কাজটি হাতে নেয়। দ্রুত যাতে এই প্রকল্পের কাজ শেষ হয় সেই চেষ্টা করা হবে। আমি এই নিকাশি নালার গোটা অঞ্চল পরিদর্শন করেছিলাম। আমি সাধারণ মানুষকে প্লাস্টিক এবং থার্মোকলের প্লেট যাতে খালের জলে না ফেলেন সেই বিষয়ে সকলকে সচেতন করেছিলাম।’

Advertisement ---
---
-----