ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার অনুমতি চাইতে পারেন স্মিথরা

সিডনি: ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নির্বাসনের শাস্তি মেনে নিয়েছেন কেপ টাউনে বল বিকৃতি কাণ্ডের তিন কুশীলব স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট৷ স্মিথ ও ওয়ার্নার আগামী এক বছর ও ব্যানক্রফট আগামী ৯ মাস ব্যাট-বল হাতে নেবেন না৷ তবে শাস্তি কিছুটা শিথিল করার রাস্তা খুঁজছেন তিন তারকাই৷ বোর্ডের আচরণবিধি মেনে শাস্তির বিরুদ্ধে আবেদন করা যায় কি না সেই দিকটাই খতিয়ে দেখছেন স্মিথ-ওয়ার্নারদের আইনি পরামর্শদাতারা৷ অন্তত বোর্ডের কাছে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার অনুমতি চেয়ে আবেদন করতে পারেন স্মিথরা৷

কোনও রকম ফর্মাল হেয়ারিং ছাড়াই স্মিথদের শাস্তি ঘোষণা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া৷ সুনানিতে দোষি ক্রিকেটাররা হাজির থাকলে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ পেতে পারতেন৷ তাছাড়া আচরণ বিধি মেনে শাস্তি দেওয়া হলে আবেদনের সুযোগ পাওয়াও উচিত স্মিথ ওয়ার্নারদের৷ আপাতত সেদিকেই নজর নির্বাসিত ক্রিকেটার ত্রয়ীর৷

শাস্তি ঘোষণার সময় তিন ক্রিকেটারকে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে দূরে সরিয়ে রাখার কথা বলা হলেও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ইঙ্গিত দিয়েছিল যে, বিদেশের মাটিতে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলা আটকানোর কোনও অধিকার নেই বোর্ডের৷

- Advertisement -

তাছাড়া ১২ মাস ঘরোয়া ক্রিকেট না খেললে নির্বাসন উঠে যাওয়ার পরেই জাতীয় দলে ফেরা সম্ভব হবে না স্মিথদের৷ সেক্ষেত্রে নির্বাচকদের সামনে ক্রিকেটারদের ডোমেস্টিক পারফরম্যান্স বিবেচনা করার সুযোগ থাকবে না৷ এক বছর পর থেকে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলা শুরু করলে অন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে স্মিথদের লেগে যাবে আরও বেশ কিছু সময়৷ একারণেই তাঁরা বোর্ডের কাছে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার অনুমতি চেয়ে আবেদন করতে চলেছেন৷ প্রয়োজনে আইনি লড়াইয়ে যেতেও তিন ক্রিকেটার প্রস্তুত বলে জানা গিয়েছে৷

অতীতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত হয়েও অজি তারকাদের ঘরোয়া ক্রিকেট চালিয়ে যাওয়ার নজির রয়েছে৷ বর্তমান নির্বাচক প্রধান ট্রেভর হন্স নিজেও এমন সুবধা পেয়েছেন৷ সুতরাং স্মিথদের ক্ষেত্রেও ঘরোয়া ক্রিকেটের দরজা খুলতে পারে৷

Advertisement ---
---
-----