চোটের জন্য মাঠে ফেরা অনিশ্চিত তারকা ক্রিকেটারের

মেলবোর্ন: ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ শুরু হওয়ার আগে বিস্তর চেষ্টা চলেছিল বল বিকৃতি কাণ্ডে নির্বাসিত দুই অজি তারকা স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরানোর। শেষ পর্যন্ত তা সম্ভব হয়নি। টেস্ট সিরিজ হারার পর অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক টিম পেইন দাবি স্পষ্ট জানান যে, এই মুহূর্তে অস্ট্রেলিয়া দলের প্রয়োজন স্মিথদের ফেরানোর।

আরও পড়ুন- রিচার্ডসের রেকর্ড ভাঙলেন ‘রো-হিট’

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া অবশ্য রাজি হয়নি স্মিথদের উপর থেকে নির্বাসন তুলে নিতে। তবে অজি ক্রিকেটমহল বিশ্বকাপে স্মিথ-ওয়ার্নারের দলে ফেরার বিষয়ে একপ্রকার নিশ্চিত। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দূরে থাকলেও ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়র লিগ, বাংলাদেশ প্রিমিয়র লিগের মতো ঘরোয়া টি-২০ লিগে খেলে সর্বোচ্চ পর্যায়ের আবহে নিজেদের ধরে রাখার চেষ্টা করছেন স্মিথরা, যাতে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেটে ফিরে পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে অসুবিধা না হয়। অজি সমর্থকরাও দলের ক্রমাগত হার দেখতে দেখতে বিরক্ত হয়ে হাপিত্যেশ করে রয়েছেন স্মিথদের ফেরার অপেক্ষায়।

- Advertisement -

ওয়ার্নারের যথা সময়ে নির্বাসন কাটিয়ে দলে ফেরার সম্ভাবনা থাকলেও স্মিথের ক্ষেত্রে অনুরাগীদের অপেক্ষা অবশ্য আরও একটু দীর্ঘ হতে পারে। কেননা চোটের জন্য বেশ কয়েকমাস ক্রিকেট মাঠ থেকে ছিটকে যেতে চলেছেন নির্বাসিত অজি অধিনায়ক। বাংলাদেশ প্রিমিয়র লিগে খেলতে গিয়ে কনুইয়ে চোট পেয়েছেন স্মিথ। তিনি তড়িঘড়ি দেশে ফিরেছেন চিকিৎসার জন্য। আঘাত পরীক্ষার পর জানা যায় গুরুতর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে কনুইয়ের লিগামেন্ট। চোটের গতিপ্রকৃতি অনুধাবন করার পর ডাক্তাররা অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দিয়েছেন স্মিথকে।

আরও পড়ুন- রাহুল-হার্দিকের পরিবর্তে কোহলির দলে সম্ভাব্য এই দুই

বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে অযথা সময় নষ্ট করতে রাজি নন স্মিথ। অজি ক্রিকেট বোর্ডও ঝুঁকি নিতে রাজি হয়নি স্মিথকে নিয়ে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে আগামী ১৫ জানুয়ারি স্মিথের কনুইয়ে অস্ত্রোপচার হবে। তার পর অন্তত ছ’সপ্তাহ হাত স্লিংয়ে ঝুলিয়ে রাখতে হবে স্মিথকে। সব শেষে শুরু হবে মাঠে ফেরার প্রক্রিয়া। বিশ্বকাপের আগে সম্পূর্ণ ফিট হয়ে মাঠে ফিরতে পারবেন কি না তা এখনই বলা সম্ভব না হলেও এটা স্পষ্ট যে নির্বাসন উঠে যাওয়ার পরেও বেশ কিছুদিন মাঠের বাইরেই থাকতে হবে স্মিথকে। খেলতে পারবেন না আইপিএলেও।

আরও পড়ুন- সনির গোলে নেরোকা ‘বধ’ বাগানের