বুদ্ধগয়ায় বিস্ফোরণের অন্যতম চক্রীকে গ্রেফতার করল এসটিএফ

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বিহারের বুদ্ধগয়ায় বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আরও এক জামাত উল মুজাহিদিন  বাংলাদেশ (জেএমবি)-এর নব্য শাখার জঙ্গিকে গ্রেফতার করল কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স৷ এই নিয়ে তিনজন জঙ্গিকে গ্রেফতার করল পুলিশ৷ ধৃত যুবকের নাম শিষ মহম্মদ৷ শুক্রবার গভীর রাতে মুর্শিদাবাদের সামসেরগঞ্জ জেলা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ শনিবার ধৃতকে ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলা হলে ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক৷

২০১৮ সালের ১৯ জানুয়ারি চতুর্দশ তিব্বতি ধর্মগুরু দলাই লামা বিহারের বুদ্ধগয়া ঘুরে যাওয়ার পরে সেখানে আইইডি বিস্ফোরণ হয়৷ ধৃত জঙ্গি শিষ মহম্মদই সেখানে বিস্ফোরক রেখেছিল বলে প্রাথমিক জেরায় জানতে পেরেছে এসটিএফ৷

বুধবার রাতে মুর্শিদাবাদ এবং দার্জিলিঙের ফাঁসিদেওয়া থেকে পয়গম্বর শেখ এবং জামিরুল শেখ নামে দুই জেএমবি জঙ্গিকে গ্রেফতার করে এসটিএফ৷ এই দু’জন বুদ্ধগয়ায় বিস্ফোরণের পরিকল্পনা করেছিল৷ কিন্তু বুদ্ধগয়ায় বিস্ফোরক কে রাখল, সে ব্যাপারে জেরা করে শিষ মহম্মদের কথা জানতে পারে পুলিশ৷ ধৃতেরা জেরায় স্বীকার করে যে, বুদ্ধগয়ায় বিস্ফোরণের তীব্রতা কম থাকলেও দলাই লামাকে খুনের জন্যই বিস্ফোরণ করা হয়েছিল৷ সেজন্য মহিলা জঙ্গিদের ব্যবহার করে বিস্ফোরক নিয়ে যাওয়া হয়েছিল মুর্শিদাবাদে৷ সেখানে আইইডি তৈরির পরে শিষ মহম্মদের মাধ্যমেই বিহারে পাঠানো হয়েছিল বলে মনে করছে পুলিশ৷

- Advertisement -

এসটিএফের এক কর্তা জানিয়েছেন, ধৃত তিন জঙ্গিই নব্য জেএমবি’র সদস্য৷ পশ্চিমবঙ্গে শক্ত ঘাঁটি তৈরি করাই তাদের উদ্দেশ্য ছিল৷ বাংলাদেশ থেকে এসে সংগঠনের সদস্যরা এসে তাদের বিস্ফোরক তৈরি করা শিখিয়েছিল৷ পাশাপাশি সংগঠন মজবুত করার জন্যও প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছিল৷ আপাতত মুর্শিদাবাদ জেলাকে কেন্দ্র করে এই চক্রের জাল ছড়িয়েছে৷ পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি অসমের জাল ছড়িয়েছে নব্য জেএমবি৷

Advertisement ---
-----