স্ত্রী দিলেন অভিশাপ, এমন কী করেছিলেন শনিদেব?

জীবনে গ্রহের ফেরে কত কিছুই না হয়৷ অন্তত অনেকেই এমনটা বিশ্বাস করে থাকেন৷ আর তার ওপর যদি শনিদেবের প্রকোপ পড়ে তাহলে তো কথাই নেই৷ সেই ভয়েই সকলে তটস্থ৷ বাধা কাটাতে, দেবতাকে সন্তুষ্ট করতে হাজার এক পূজার্চনা৷ সূর্য এবং ছায়ার পুত্র হলেন শনি৷ শনির দৃষ্টি নিয়ে সকলেই ভীত সন্ত্রস্ত৷ কিন্তু জানেন কি এরকমটা কেন হ’ল?

ব্রহ্মপুরাণ মতে, শৈশব থেকেই শনিদেব ছিলেন শ্রীকৃষ্ণের ভক্ত৷ যৌবনকালে চিত্ররথের কন্যার সঙ্গে তাঁর বিবাহ হয়৷ তিনি ছিলেন পরম তেজস্বিনী৷ পুত্রসন্তানের ইচ্ছেতে একবার তিনি শনিদেবের কাছে গেলে দেখেন, শনিদেব শ্রীকৃষ্ণের ধ্যানে মগ্ন৷ প্রতীক্ষা করতে করতে তিনি ক্লান্ত হয়ে যান, ক্ষোভে পড়ে তিনি শনিদেবকে অভিশাপ দিয়ে বলেন, শনিদেব যাকে দেখবেন সে ভস্ম হয়ে যাবে৷

কিছু পরে ক্ষোভ কমলে, শনিদেবের স্ত্রী নিজের ভুল বুঝতে পারেন৷ কিন্তু অভিশাপ ফিরিয়ে নেওয়া সম্ভব ছিল না৷ তাই সেদিন থেকেই শনিদেব নিজের মাথা নীচু করে রাখতেন, যাতে কারও অনিষ্ট না হয়ে যায়৷

Advertisement
----
-----