মানসী সাহা, কলকাতা: গরম নেমেছে শহরে শহরে। পিছিয়ে নেই কলকাতার ফ্যাশনের ময়দান। তাই কফির আড্ডা হোক বা রাতের পার্টি হালফিলের ফ্যাশনে নিজেকে সাজিয়ে তুলুন অন্যরকম ভাবে। জানাচ্ছেন ডিজাইনার দেবজানি সরকার।

  • গরমের জামাকাপড়ের বাছার আগে সবার আগে নজর রাখুন ফেব্রিকের ওপর৷ সুতির পোশাকই হোক গরমের পোশাকের প্রথম পছন্দ৷ দিন হোক বা রাত, গরম থেকে বাঁচতে সুতি কাপড়ের তৈরি পোশাক একদিকে যেমন ফ্যাশনেবল, তেমনি আরামদায়কও৷
  • পোশাকের রঙ হিসেবে গরমে বাছুন হালকা রং৷ সাদা এ ব্যাপারে একদম পারফেক্ট৷ চলতে পারে হালকা গোলাপি, হলুদ, বা সবুজ রঙ৷ দিনেরবেলা উজ্জ্বল রঙ না বাছাই ভালো৷ গরমকালে জমকালো রঙ এড়িয়ে চলা উচিত।
  • গরমে ফেমিনিন কালার বা ফ্রুট কালার অর্থাৎ আপেল বা ফলের রঙে ম্যাচিং ট্র্যাক স্যুট-এর বেশ চল হয়েছে। ওয়াই়ড বা ব্রড স্ট্রাইপ ফ্যাশনে ইন। চেকস খুব চলছে। তবে ডেনিম স্কিনি জিনস এখন আউট। বদলে ডেনিম ওয়াইড লেগ জিনস এখন ইন। হোয়াইট জিনস খুব চলছে। আর চলছে কিউলাট।
  • টাইট পোশাকের পরিবর্তে পরুন ঢিলেঢালা পোশাক৷ রোদে বেরনোর সময় ফুলহাতা পোশাক পরুন৷ সকলের নজর কাড়তে রাত-পোশাকের ধরনের পাজামা সেট ফিরে এসেছে পার্টি ওয়্যারে। লাক্সারিয়াস সিল্ক মেটিরিয়ালে এই ধরনের পোশাক এখন অনেকেরই হট ফেভারিট। এদিকে হারেম প্যান্টের আদলে এক ধরনের পোশাকের চল হয়েছে। যাতে দু পায়ের ভাজে অনেকটা করে কাপড় রাখা হচ্ছে। আবার পায়ের নীচের অংশও বেশ চওড়া করে বানানো হচ্ছে। আরামদায়ক এই পোশাকও গরমের ফ্যাশনে ভীষণ ভাবে ইন।
  • ফাইন প্লিট দেওয়া জামা, স্কার্ট, টপ ও গাউন ফ্যাশনিস্তাদের পছন্দের। ওয়ান শোল্ডার গাউন, টপ ও ড্রেস এখন জেন ওয়াইদের খুব পছন্দের। লেস ফ্রেবিকের সামার ড্রেস, ফ্লোরাল প্রিন্টের প্যান্ট-স্যুট রমরমীয়ে চলছে। সেমিজ জাতীয় জামা, টপ বা গাউন যা আগে নাইট ড্রেস হিসেবে চলত এখন পার্টি ওয়্যার হিসেবে চলছে। স্পেশালি সাটিন বা লেস ফ্রেবিকের তৈরি পোশাক এখন হট চয়েস।
  • তবে সাবেগি সাজে নিজেকে সাজাতে চাইলে, শাড়ির ক্ষেত্রে সুতি বা ঢাকাই শাড়ি পরতে পারেন।

টিপস:
গরমে চড়া মেক আপ কখনই নয়। মুখে হালকা ফাউন্ডেশন লাগান। শুধু চোখ হাইলাইট করুন। মাশকারা ব্যবহার করতে পারেন। বুট বাদ। গরমে পা ঢাকা থাকলে ঘেমে গন্ধ হতে পারে। সেটা যেমন অস্বাস্থ্যকর তেমন অস্বস্তিকর।

----
--