দূষণ রুখতে মন্ত্রী শুভেন্দুর বার্তায় মিলছে ফল

স্টাফ রিপোর্টার, হলদিয়া: শিল্পের শহর হলদিয়াকে দূষণ মুক্ত রাখতে আরও বেশি সংখ্যক গাছ লাগানো উচিত৷ এই বিষয়ে হলদিয়াবাসীকে ও কারখানার কর্মীদের আরও সচেতন করতে মঙ্গলবার রাজ্যের পরিবেশ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী হলদিয়ার এনার্জি লিমিটেড নামক একটি বিদ্যুৎ উৎপাদন কারখানার অনুষ্ঠানে যোগদান করেন৷

অনুষ্ঠানে এসে শুভেন্দু অধিকারী জানান, বাম সরকারের সময় কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ ২০১০ সালে ফেব্রুয়ারি মাসে হলদিয়া শিল্পাঞ্চলে মনিটোরিয়াম লাগু করে। তারপর থেকে হলদিয়াতে শিল্পের বিনিয়োগ বন্ধ হয়ে যায়।

আরও পড়ুন: শিবুর তবলার সুরে পালায় মশা

তিনি নিজে সাংসদ থাকা কালিন তৎপরতার সঙ্গে এই মনিটোরিয়াম তোলার জন্য বলেন। পরিবেশ দফতরের সহযোগিতায় তিনি অনেক বারই কেন্দ্রীয় দূষণ পর্ষদের সঙ্গে বৈঠক করেন। ২০১৩ সালে সেপ্টেম্বর মাসে কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ হলদিয়া শিল্পাঞ্চল থেকে মনিটোরিয়াম তুলে নেয়। এর ফলে গত দু বছরে হলদিয়াতে অনেক শিল্পের বিনিয়োগ হয়েছে। তাই শিল্পাঞ্চলে দূষণের মাত্রা ঠিক রাখতে গেলে আরও বেশি সংখ্যক গাছ লাগাতে হবে।

আরও পড়ুন: জেলা দফতর ভাঙচুরের অভিযোগে রাস্তা অবরোধ নকশালপন্থীদের

কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ তিনটি বিষয়ের উপর লক্ষ্য রাখার কথা বলেছিল৷ সেগুলি হল কারখানাগুলিকে পরিকাঠামো গত উন্নয়ন ও সবুজায়নের প্রতি নজর দিতে হবে। হলদিয়া রিফাইনারির পাইপের তেল যেন নদীতে না মেশে। এবং শিল্পাঞ্চল এলাকাগুলিতে নিকাশি ব্যবস্থা ঠিক রাখা উচিত।

আরও পড়ুন: সুইজারল্যান্ডকে ছিটকে শেষ আটে সুইডেন

হলদিয়া এনার্জি লিমিটেড সেই নির্দেশ মেনেই প্রায় ৯৯৯৯৯ টি গাছ লাগিয়েছে। মঙ্গলবার পরিবেশ মন্ত্রীর হাত দিয়ে একটি গাছ লাগানো হল কারখানার ভিতরেই। শুভেন্দু বাবু জানিয়েছেন, সব শিল্প সংস্থা এই জুলাই মাসে ১৪ থেকে ২০ তারিখ পর্যন্ত অরণ্য সপ্তাহে আরও বেশি করে গাছ লাগাবে। তাহলেই হলদিয়া দূষণ মুক্ত হবে। এর ফলে হলদিয়াতে শিল্পপতিরা আরও বিনিয়োগ করার উদ্যোগ নেবে।

আরও পড়ুন: মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলার মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য বাঁকুড়ায়

----
-----