ভারতে সুজুকির গাড়ি উৎপাদন ২ কোটি ছাড়াল

নয়াদিল্লি: মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়া লিমিটেডের ভারতে পুঞ্জীভূত গাড়ি উৎপাদন ২ কোটি ছাড়াল৷ সংস্থার পক্ষ থেকে সোমবার একথা জানানো হয়েছে ৷ জাপানের পর ভারতই হল দ্বিতীয় দেশ যেখানে সুজুকি এই মাইলস্টোন ছুঁল বলে সংস্থার পক্ষ থেকে বিবৃতিতে জানান হয়েছে৷

সুজুকি মোটর কর্পোরেশন মারুতি উদ্যোগের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে ভারতে তাদের যাত্রা শুরু করেছিল ১৯৮৩ সালের ডিসেম্বরে৷ জাপানে ২ কোটি উৎপাদনের রেকর্ড গড়ে ছিল ৪৫ বছর ৯ মাসে এবার সেই রেকর্ডও ভেঙে দিল৷ ফলে গত ৩৪ বছর পাঁচ মাস সময়ে এই ২ কোটি ইউনিট উৎপাদন হল দেশের মধ্য সবচেয়ে দ্রুত ৷

সুজুকি এখন এদেশে গাড়ি উৎপাদন করে মারুতি উদ্যোগের মাধ্যমে যেখানে সুজুকির হাতে রয়েছে ৫৬.২১ শতাংশ মালিকানা এবং পুরোপুরি মালিকানাধীন সুজুকি মোটর্স গুজরাত যা ভারতীয় সংস্থাকেই শুধুমাত্র মাল সরবরাহ করে থাকে৷ এদিক মারুতি সুজুকি গাড়ি উৎপাদন করে গুরগাঁয় এবং মানেশ্বর কারখানা যেখানে সুজুকি মোটর্স গুজরাত থেকে গাড়ি বের হয় তাদের রাজ্যের মেহসানা থেকে৷

- Advertisement -

এই দু’কোটির মধ্যে সবচেয়ে বেশি উৎপাদিত গাড়ি হল অল্টো যা তৈরি হয়েছে ৩১.৭ লক্ষ ইউনিট ৷ ২০১৭-১৮ সালে ১৭.৮ লক্ষ ইউনিট তৈরি হয়েছে ভারতে যার মধ্যে ১৬.৫ লক্ষ ইউনিট বিক্রি হয়েছে দেশের বাজারে এবং ১.৩ লক্ষ ইউনিট রফতানি হয়েছে ইউরোপ, এশিয়া , আফ্রিকা, ল্যাটিন অ্যামেরিকার প্রায় একশ দেশে৷

কোম্পানি ১৯৯৪ সালের মার্চে ১০ লক্ষের মাইলস্টোন ছাড়িয়ে ছিল এবং ২০১১ সালের মার্চে ১ কোটি ছুয়েছিল৷ ২০১৫ মে মাসে পুজীভূত উৎপাদন ছাড়ায় ১.৫ কোটি৷ অল্টো বাদে শীর্ষে থাকা বাকী মডেলগুলি হল-মারুতি ৮০০ (২৯.১ লক্ষ ইউনিট), ওয়াগন আর( ২১.৩ লক্ষ ইউনিট) ওমনি(১৯.৪ লক্ষ ইউনিট) এবং সুইফ্ট (১৯.৪ লক্ষ ইউনিট) ৷

জাপানিএই ছোট গাড়ি সংস্থা ভারতে উৎপাদন শুরু করে ১৯৮৩ সালের ডিসেম্বরে এবং প্রথম মডেলটি ছিল মারুতি উদ্যোগের মারুতি ৮০০৷ এখন তিনটি কারখানায় ১৬টি মডেল উৎপাদিত হয় যাদের মধ্য ডিজায়ার, বলেনো, অল্টো, সুইফ্ট ,ওয়াগন আর ওয়ার এবং ভিতারা ব্রেজা ইত্যাদি৷

Advertisement
---