বয়স নিয়ে প্রশ্ন নেটিজেনের, ক্ষোভ উগরে দিলেন স্বস্তিকা

কলকাতা : “আমি একজন অভিনেত্রী৷ কোনও চরিত্রে অভিনয় করার আগে আমাদের সেই চরিত্রে মতো দেখতে হয়ে উঠতে হয়৷ সে ২৪ ঘন্টা সুন্দর, গ্ল্যামারাস আর কমবয়সী দেখানোটা জরুরি নয়৷ অফস্ক্রিন হোক বা অনস্ক্রিন, সর্বদা সুন্দর দেখতে হবে তার কোনও মানে নেই৷ তাই এবার আমায় জিজ্ঞেস করা বন্ধ করুন কেন আমায় আমার ২০ বছর বয়সী লাগে না৷” এমনই কথা লিখে ট্যুইটারে একটি ছবি আপলোড করেছেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়৷

সেই পোস্টে একজন তাঁর বয়স নিয়ে মন্তব্য করে লিখেছে, “৪০ বছর বয়সেও আপনাকে সুন্দর দেখতে লাগে৷” কথায় বলে মহিলাদের বয়স কখনও জিজ্ঞেস করতে নেই৷ স্বস্তিকাকে এই প্রশ্ন করতেই তিনি সরাসরি সেই ব্যক্তিকে প্রশ্ন করলেন কে তাকে বলেছে যে স্বস্তিকার বয়স ৪০৷ এই রিপ্লাইতে আরেকজন লিখেছে যে গুগলে নাকি স্বস্তিকার বয়স ৪০ দেখায়৷ কিন্তু পরমুহূর্তে ভুল ভেঙে দিয়ে স্বস্তিকা জানান, তাঁর বয়স আসলে ৪৪৷ অর্থাৎ গুগল ভুল বলেছে৷

চলচ্চিত্র জগতে বয়স লুকিয়ে রাখেন অধিকাংশ অভিনেতা অভিনেত্রী৷ একই জায়গায় দাঁড়িয়ে স্বস্তিকা সগর্বে নিজের বয়স ট্যুইটারে বললেন৷ এর থেকেই বোঝা যায় যে কেবল একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করার জন্য এমন ক্যাপশন তিনি দেননি৷ প্রতিটি শব্দে তিনি বিশ্বাসী৷ তাই একজন ভক্তকেও নিজের বয়স বলতে পিছপা হলেন না অভিনেত্রী৷ ছাঁচে ফেলা গতানুগতিক জীবন তাঁর না পসন্দ। সমাজের তোয়াক্কাও তিনি করেন না তেমন। খোলা আকাশে ডানা মেলে উড়ে বেড়ানো তাঁর স্বভাব।

প্রসঙ্গত, স্বস্তিকার বলি-সফরের রেলগাড়ি প্রথম স্টেশন ছাড়িয়ে দ্বিতীয় স্টেশনে পা রেখেছে। আর এবারও তাঁর সফর সঙ্গী সেই সুশান্ত সিং রাজপুত। বিখ্যাত কাস্টিং ডিরেক্টর মুকেশ ছাবরার প্রথম হিন্দি ছবিতে দেখা যাবে অভিনেত্রীকে। বিপরীতে শোনা যাচ্ছে, বাঙালি অভিনেতা শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের নাম। দুই ক্যানসার রোগীর মর্মস্পর্শী প্রেম নিয়ে গল্প বুনেছিলেন জন গ্রিন। তাঁর উপন্যাসে সেলুলয়েডের পর্দায় ফুটিয়ে তুলেছিলেন পরিচালক জশ বুন। ‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টারস’ ছবির হিন্দি রিমেক নিয়ে আসছেন মুকেশ ছাবরা। আর মুকেশের নায়ক নায়িকা সুশান্ত সিংহ রাজপুত, সঞ্জনা সাংহি। সিনেমার নাম ‘কিজি অওর ম্যান্নি’। এই ছবিতে গুরুত্বপূর্ণে চরিত্রে দেখা যাবে স্বস্তিকাকে৷

----
-----