রাতে লাইট জ্বেলে সেলাই, স্বামীর আপত্তিতে আত্মঘাতী বধূ

স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: চোখের সমস্যা স্ত্রীর৷ স্বামীর আপত্তি সত্ত্বেও রাতের সেলাই করা নিয়ে স্বামী-স্ত্রী মধ্যে বচসার জেরে অ্যাসিড খেয়ে আত্মঘাতী গৃহবধূ৷ তবে, কী এটাই শুধু কারণ, না কী নেপথ্যে অন্য কারণ রয়েছে? এই নিয়ে রহস্য দানা বাঁধতে শুরু করেছে৷ ঘটনাটি ঘটেছে হবিবপুর থানার বুলবুলচণ্ডী এলাকার হাসপাতালপাড়া এলাকায়৷ ওই গৃহবধূর নাম ববি দাস(৪৫)৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷

জানা গিয়েছে, মৃত ববি দাসের দুই ছেলে৷ তারা প্রতিদিনের মত এদিন সকালে কাজে বেড়িয়ে যান৷ এরপর ববির স্বামী বিজয় দাস রাতেবাড়ি ফিরে আসতেন৷ সংসারে আর্থিক সমস্যাও ছিল বেশ রয়েছে৷ সেই কারণে ববি সেলাই করে সংসারে সাহায্য করতেন৷ সেই মত সেলাইয়ের বরাদ নেন গৃহবধূ৷ সময়ে কাজ ফেরত দেওয়ার জন্য চোখের সমস্যাকে উপেক্ষা করে কাজ করছিলেন তিনি৷ এই সময় লাইট জ্বালিয়ে সেলাইয়ের কাজ করতে থাকেন স্ত্রী৷

বার বার স্বামী তাঁকে চোখের সমস্যা হবে বলে লাইট বন্ধ করতে বলেন৷ কিন্তু ববি কোন কথায় কান না দিয়ে সেলাইয়ের কাজ করতে থাকেন৷ এর আগে থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক অশান্তি লেগেই ছিল৷ এদিন এই নিয়ে তাদের মধ্যে বচসা চরম আকার নেই৷ এরপরেই ঘরে থাকা অ্যাসিড খেয়ে নেন ববি৷ ঘটনায় বাড় ফিরে ছেলে বাপি দেখতে পেয়ে তড়িঘড়ি বুলবুলচণ্ডী আর এন রায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার অবস্থা খারাপ থাকায় মালদহ মেডিক্যালে স্থানান্তর করা হয়৷

- Advertisement -

এরপর চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতদেহ ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে৷ তবে শুধুই কি সামান্য সেলাই মৃত্যুর কারণ না নেপথ্যে অন্য কিছু রয়েছে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

Advertisement ---
---
-----