শতাধিক আফগানকে বন্দি বানিয়েছে তালিবানরা

কাবুল: ইদ-উল আধা উপলক্ষে তালিবানের সঙ্গে শর্তসাপেক্ষে সাময়িক যুদ্ধ বিরতির ঘোষণা করেছেন আফগান প্রেসিডেন্ট আসরাফ ঘানি৷ তারপরেও শতাধিক মানুষকে বন্দি বানিয়েছে তালিবান জঙ্গিরা৷ বন্দিরা ঠিক কী অবস্থায় আছে তা এখনও জানা যায়নি৷ উৎকন্ঠা শুরু হয়েছে বন্দি পরিবারের মধ্যে৷ অপহৃতদের উদ্ধারে তালিবানের সঙ্গে কথা শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন৷

আফগানিস্তানের কুনডুজ প্রদেশে ঘটে ঘটনাটি৷ তখর প্রদেশের পুলিশ কর্তা আবদুল রহমান আকতাশ জানান, অপহৃতরা অধিকাংশ বাদাখশান ও তখর প্রদেশের বাসিন্দা৷ বাসে করে তারা রাজধানী কাবুল যাচ্ছিল৷ অধিকাংশ যাত্রী মহিলা ও শিশু৷ খান আবাদ জেলার কাছে আসতেই মাঝরাস্তায় যাত্রীবোঝাই তিনটি বাস আটকায় তালিবানরা৷ তিনটি বাস থেকে শতাধিক যাত্রীকে অপহরণ করে তারা৷

এক আফগান পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, তালিবানরা ভেবেছিল ওই বাসে সরকারি কর্মী অথবা তাদের পরিবারের সদস্যরা রয়েছে৷ ছুটি থাকায় তারা বাড়ি ফিরছিল৷ এরপরই মাঝরাস্তায় বাস থামিয়ে জবরদস্তি তাদের বন্দি বানায়৷ এখনও অবধি তালিবানের তরফে কোনও বিবৃতি জারি করা হয়নি৷ বন্দিদের উদ্ধারে তালিবান নেতাদের সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়েছে৷

- Advertisement -

জঙ্গি ও সন্ত্রাস কার্যকলাপে বিধ্বস্ত আফগানিস্তানে সম্প্রতি সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেন সেদেশের প্রেসিডেন্ট৷ দেশের ৯৯ তম স্বাধীনতা দিবস এবং ইদ-উল আধা উপলক্ষে এই যুদ্ধবিরতি৷ যদিও এই যুদ্ধবিরতি তালিবানরা মানবে না বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছিল৷ তালিবানের এক শীর্ষ নেতা জানান, যতক্ষণ বিদেশি সেনার উপস্থিতিতে যুদ্ধবিরতি পালন করা অর্থহীন৷

Advertisement ---
---
-----