তৃণমূলের অবৈধ নির্মাণ ভাঙতে মাঠে নামছে প্রশাসন

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: পঞ্চায়েত কিংবা পুর এলাকায় সরাসরি অবৈধ নির্মাণের বিরুদ্ধে তদন্তে নামতে চলেছে জেলা প্রশাসন৷ ইতিমধ্যেই বর্ধমান পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের বংপুর এলাকার একটি অবৈধ নির্মাণ নিয়ে ভূমি দফতরের কাছে বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছেন জেলাশাসক৷

সম্প্রতি বর্ধমানের সরাইটিকর গ্রাম পঞ্চায়েতের বেহুলা নদী বুজিয়ে সেখানে স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের মদতে বাড়ি তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়৷ এব্যাপারে জেলা প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগও জমা পড়ে৷ একইসঙ্গে বর্ধমান পুরসভার ১৮নম্বর ওয়ার্ডের বংপুর এলাকাতেও হাইড্রেন বুজিয়ে সেখানে বাড়ি তৈরি শুরু হয়ে যায়৷

খবর পেয়ে দুটি জায়গাতেই গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখতে যান জেলাশাসক ও জেলা পুলিশ সুপার-সহ প্রশাসনিক আধিকারিকরা৷ এরপরই জেলাশাসক ভূমি দফতরের কাছে এই অবৈধ নির্মাণ নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে৷
এদিকে, ১৮নং ওয়ার্ডের বংপুর এলাকার মাত্র একটি বাড়িই নয়, ইতিমধ্যেই স্থানীয় বাসিন্দারা এই ওয়ার্ডের আরও কিছু অবৈধ নির্মাণের বিষয়ে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন বলে জানা গিয়েছে৷ এমনকী এক প্রভাবশালী তৃণমূল নেতার এক আত্মীয়ের বিরুদ্ধেও এই অবৈধ নির্মাণের মদত দেওয়ার অভিযোগ দায়ের হয়েছে জেলা প্রশাসনের কাছে৷

- Advertisement -

অপরদিকে, এই বিষয়টি সামনে আসতেই গোটা পুর এলাকাজুড়েই শুরু হয়েছে খানাতল্লাশি৷ কোন কোন ওয়ার্ডে কতগুলি অবৈধ নির্মাণ হয়েছে, তারও তালিকা তৈরির প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন বিরোধীরা৷ অভিযোগ উঠেছে, বাম আমল থেকে শুরু হওয়া এই অবৈধ নির্মাণ রীতিমতো স্বেচ্ছাচারী ভূমিকা নেয় তৃণমূলের আমলে৷ কীভাবে কাউন্সিলাররা এই সমস্ত অবৈধ নির্মাণের অনুমতি দিলেন? কেন তাঁদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হল না, তা নিয়েও সরব হচ্ছেন এলাকাবাসীরা।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বংপুরের যে হাইড্রেন বুজিয়ে ওই বাড়ি তৈরি করা হয়েছে এক সময় সেখান দিয়েই নাকি কোনও নদী প্রবাহিত হত বলে কেউ কেউ জানিয়েছেন৷ জেলাশাসক জানিয়েছেন, এব্যাপারে বিস্তারিত রিপোর্ট পাওয়ার পরই ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ নিয়মানুযায়ী নদীর গতিপথ রুদ্ধ বা পরিবর্তন করা যায় না৷

অন্যদিকে, বর্ধমান পুরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে তৃণমূল নেতাদের মদতে যে সমস্ত অবৈধ নির্মাণ করা হয়েছে, সাম্প্রতিককালে সেগুলিকেও ভাঙার দাবি তুলতে শুরু করেছেন বাসিন্দারা৷ এদিকে, চলতি বছরের মাঝামাঝি নাগাদ বর্ধমান পুরসভার ভোট৷ তার আগেই অবৈধ নির্মাণ নিয়ে ক্রমশই তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাল্লা ভারি হতে থাকায় রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়েছেন তৃণমূল নেতারা৷

বিজেপির যুব মোর্চার জেলা সভাপতি শ্যামল রায় জানিয়েছেন, বর্ধমান পুর এলাকার এই অবৈধ নির্মাণ বন্ধ করা ও অবৈধ নির্মাণগুলিকে ভেঙে ফেলার দাবিতে তাঁরা পুরপ্রধানের কাছে স্মারকলিপি দেবেন৷ পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, যে সমস্ত মানুষ টাকা দিয়ে ওই নির্মাণ করেছেন, এখন পরিস্থিতি চাপে পড়ে তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগের তির ছুঁড়লেও, যাঁরা একাজে মদত দিয়েছেন তাঁদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হবে৷

Advertisement ---
-----