স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: ঘরের ভেতর থেকে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় গোটা এলাকায়৷ মৃতের নাম মহম্মদ শোয়েব আনসারী (৫৫)৷ পেশায় দর্জি তিনি৷

মঙ্গলবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মালদহ জেলার হরিশচন্দ্রপুর এলাকায়৷ তবে মৃত ব্যক্তির আসল বাড়ি বিহারের খাগারিয়া জেলার কসবা গ্রামে৷

আরও পড়ুন: বিদ্যুৎ চুরি রুখতে জনসংযোগই হাতিয়ার মমতার প্রশাসনের

স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে খবর, প্রায় ৩৫ বছর ধরে হরিশচন্দ্রপুর এলাকায় ওই ব্যক্তি দর্জির ব্যবসা করছেন৷ তাঁর আসল বাড়ি বিহারে৷ সেখানেই ওই ব্যক্তির গোটা পরিবার থাকেন৷ এখানে আসার পর তাঁর দোকানের পিছনেই একটি ঘর ভাড়া নিয়ে থাকতেন ওই ব্যক্তি৷

কিন্তু মঙ্গলবার সকালে অনেকটা সময় কেটে গেলেও তাঁর দেখা পায়না স্থানীয়েরা৷ সন্দেহের বশে তাঁর ঘরের সামনে গেলে স্থানীয়েরা দেখতে পায় ওই ব্যক্তির ঘরের দরজা খোলা৷ মৃতদেহটি মাটির উপর পড়ে রয়েছে৷ এমনকি গলায় ফাঁসের দাগও রয়েছে৷

আরও পড়ুন: আবির্ভাবেই ঝড় তুললেন স্মৃতি

এলাকাবাসীরাই ঘটনার বিস্তারিত স্থানীয় হরিশচন্দ্রপুর থানায় খবর দেয়৷ পরে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। তবে এই দর্জির মৃত্যুর ঘটনায় স্থানীয়দের ধারণা সম্ভব কোনও টাকাপয়সা সংক্রান্ত লেন-দেনের জেরেই খুন করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে৷ এদিকে এই মৃত্যুর পিছনে আসল কারণ কি তা খতিয়ে দেখছে হরিশচন্দ্রপুর থানার পুলিশ৷

আরও পড়ুন: গেরুয়া শিবিরে অমর সিং? জল্পনা তুঙ্গে

----
--