স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: সময়ের মধ্যে শেষ হল জলপাইগুড়ি অস্থায়ী সার্কিট বেঞ্চের কাজ৷ পরিকাঠামো পরির্দশন করলেন বিচার বিভাগীয় সচিব বিবেক চৌধুরী৷ তিনি কাজ দেখে অত্যন্ত খুশি৷ এই বিষয়ে তিনি বেশি কিছু বলতে চাননি৷

জানা গিয়েছে, অস্থায়ী বেঞ্চের কাজ শুরুতেই আট হাজার মামলার নথি রাখা যায় সার্কিট বেঞ্চের রেকর্ড রুমে৷ তার ভিত্তিতে পরিকাঠামো তৈরি করে দেওয়ার নির্দেশ দিলেন রাজ্যের সচিব৷

আরও পড়ুন: ‘তৃণমূল প্রতিনিধিরা হোটেলে মাছ-ভাত খাবেনা’

এদিন সার্কিট বেঞ্চের অস্থায়ী আদালত ভবন, বিচারপতিদের আবাসন সহ কর্মীরা কোথায় থাকবেন সবই দেখেছেন সচিব। পরিদর্শনের পরে জলপাইগুড়ি সার্কিট হাউসে সব দফতরের আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেছেন তিনি।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, জলপাইগুড়ির পরিকাঠামো নিয়ে হাইকোর্টে রাজ্যের তরফে চূড়ান্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার আগে এই পরিদর্শন হল। রাজ্যের তরফে জানানো হয়েছিল, আগামী ১৭ অগস্ট জলপাইগুড়িতে সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধন হতে চলেছে। মূল প্রবেশপথ শুধু বিচারপতিদের যাতায়াতের জন্য ব্যবহার হবে। বিচারপ্রার্থী ও সাধারণের জন্য অন্য একটি প্রবেশ পথ করা হবে৷ পাশাপাশি হাইকোর্টের কর্মী-আইনজীবীদের জন্য অন্য একটি গেট নির্দিষ্ট করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: রাস্তা সারাইয়ের দাবিতে রাজ্য সড়ক অবরোধ

তবে সচিব বিবেক চৌধুরী কোনও মন্তব্য করতে চাননি। তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “যতদূর যা হয়েছে দেখে গেলাম। এর থেকে বেশি এখন আমার পক্ষে আর কিছু বলা সম্ভব নয়।”

এদিকে সার্কিট বেঞ্চের এক ঠিকাদার তরুণ গুহ বলেন, ‘‘আমাদের সময় বেঁধে দিয়েছিল কাজের৷ সেই সময়ের মধ্যে আমাদের কাজ শেষ হয়ে গিয়েছে।’’

আরও পড়ুন: প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বিয়ে নিয়ে এ কী বললেন কিং খান!

----
--