আম চুরিতে বাধা দেওয়ায় আক্রান্ত মা ও ছেলে

স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: বাগানে ঢুকে আম চুরি করতে বাধা দেওয়ায় প্রতিবেশির হাতে আক্রান্ত হলেন এক মহিলা ও তাঁর ছেলে৷ ঘটনাটি ঘটেছে মালদহর রতুয়া বালুপুর এলাকায়৷ আহত মহিলার নাম ভারতী ঘোষ ও তাঁর ছেলে বিফল ঘোষ৷ ভারতী দেবীকে ও তাঁর ছেলেকে আহত অবস্থায় মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷

ভারতী দেবী ও তাঁর ছেলের অভিযোগ, তাঁদের বাগান থেকে প্রতিবেশি দেবাশিষ ঘোষ আম লুট করছিলেন৷ তাঁকে লুট করতে দেখে ফেলেন ভারতী দেবী৷ সেই সময় তাঁরা বাধা দেন দেবাশিষ ঘোষকে৷ এরই জেরে দেবাশিষ তাঁর দলবল নিয়ে এসে ভারতী দেবী ও তাঁর ছেলের উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয়৷ ভারতী দেবীর ডানহাতে গুরুতর আঘাত লাগে৷

আরও পড়ুন: ধর্মগ্রন্থ না পড়তে চাওয়ায় পরিবারের হাতেই খুন কিশোরী

- Advertisement -

গ্রামবাসীরা তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র নিয়ে যান৷ সেখান থেকে তাঁকে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করে৷ সেখানেই তাঁরা চিকিৎসাধীন৷ ভারতী দেবীর পরিবার দেবাশিষ ঘোষের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷ পরিবারের করা অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে৷

প্রসঙ্গত, চলতি বছরে জানুয়ারি মাসে মালদহর ইংরেজবাজার থানার কাজি গ্রাম এলাকার কামালপুরে আম চুরির অভিযোগে দুই ভাই-বোনকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠেছিল এলাকার মাতব্বরদের বিরুদ্ধে৷ আহত যুবকের নাম হাবিব শেখ ও তাঁর বোন রুকসানা খাতুন৷ ঘটনার পর তাঁকে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল৷

আরও পড়ুন: মধুচক্র নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য অভিনেত্রী অনসূয়ার!

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রতিবেশী হাবিব শেখ এলাকার মাতবর মহন্মদ হাসানের বাগানের আম চুরি করেছে৷ এরপরই ঘটনার দিন রাতে হাবিবের বাড়িতে লাঠি-রড নিয়ে মহম্মদ হাসান ও তাঁর দলবল চড়াও হয়৷ তাঁকে মারধর শুরু করে৷ ঘটনায় হাবিবকে বাঁচাতে ছুটে আসে তার বোন রুকসানা খাতুন৷ অভিযোগ রুকসানা খাতুনকেও মারধর করে মহন্মদ হাসান ও তাঁর দলবল৷

ঘটনার পর স্থানীয়রা আহত ভাই বোনকে উদ্ধার করে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যায়৷ প্রাথমিক চিকিৎসার পর রুখসানাকে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ কিন্তু হাবিব গুরুতর জখম হওয়ায় সে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধী৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ৷ যদিও এই ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি৷

আরও পড়ুন: এবার থেকে প্রজাপতি হাতে ঢুকতে হবে এই পার্কে

Advertisement
----
-----