ঢাকা: ঝিনাইদহ সদরের করাতিপাড়ায় বৃদ্ধ এক হিন্দু পুরোহিতকে গলা কেটে হত্যা করেল দূষ্কৃতিরা। মঙ্গলবার সকাল নটা নাগাদ মহিষাডাঙ্গা গ্রামের একটি মাঠ দিয়ে বাইসাইকেলে করে যাওয়ার সময় তাঁকে হত্যা করা হয়।নিহত পুরোহিতের নাম আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলি। তাঁর বয়স আনুমানিক ৭০ বছর।

এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলি আশপাশের বিভিন্ন গ্রামে পূজা করতেন। তিনি সহজ-সরল মানুষ ছিলেন। গ্রামের কারও সঙ্গে পুরোহিত বা তাঁর পরিবারের কোনও বিরোধ ছিল না। মৃতের স্ত্রী শেফালী গাঙ্গুলি জানিয়েছেন, বাড়িতে পূজা ও খাওয়াদাওয়া সেরে সকালে বেরিয়েছিলেন তাঁর স্বামী। স্থানীয় সূত্রে খবর, নিহত পুরোহিতের তিন মেয়ে ও দুই ছেলে। তিন মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। দুই ছেলের একজন স্থানীয় স্কুলের শিক্ষক ও আরেকজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী৷ ইতোমধ্যেই ময়না তদন্তের জন্য বডি পাঠানো হয়েছে বলে খবর৷ পুলিশের অনুমান সাম্প্রতিক বিভিন্ন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে এ ঘটনার মিল থাকতে পারে৷যোগ থাকতে পারে জঙ্গী সংগঠন আইএসের৷

গত রোববার চট্টগ্রামে পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদ খানমকে গুলি করে হত্যা করে মোটরসাইকেলে আসা দুর্বৃত্তরা। ওই একই দিনে নাটোরে খ্রিস্টধর্মাবলম্বী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সুনীল গোমেজকে নিজ দোকানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। তাঁকে হত্যার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

----
--