সততার পরিচয় দিলেন পোস্ট অফিসের সাব পোস্ট মাস্টার

স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: সততার পরিচয় দিলেন পোস্ট অফিসের সাব পোষ্ট মাষ্টার রতন পন্ডিত। শুক্রবার সকালে তিনি অফিস যাওয়ার পথে রাস্তায়একটি ব্যাগ কুড়িয়ে পান৷ ব্যাগের ভেতরে ছিল ব্যাংকের পাস বই, নগদ টাকা, আধার কার্ড৷

দেরি না করে তিনি সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় থানায় হাজির হন৷ কুড়িয়ে পাওয়া ব্যাগটি জমা দেন থানার ডিউটি অফিসারের কাছে৷ ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি জেলার কোতয়ালী থানা এলাকায়৷

আরও পড়ুন: অমিতের সভায় ‘লাখো মানুষে’র সমাগম নিয়ে চিন্তিত তৃণমূল

সংশ্লিষ্ট সাব পোস্টারের প্রশংসা করছেন পুলিশ অফিসারেরা৷ তাঁদের মতো, সকলে যদি এভাবে সততার পরিচয়দেন তাহলে থানায় মিসিং ডায়েরির সংখ্যাও কমবে৷ কুড়য়ে পাওয়া ব্যাগটি নির্দিষ্ট প্রমাণের ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে৷ রতনবাবু জলপাইগুড়ির ইংঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এলাকারয় পোস্ট অফিসের সাব পোস্ট মাস্টার৷

তাঁর কথায়, ‘‘শুক্রবার ডিউটিতে যাওয়ার সময় রাস্তার ধারে একটি ব্যাগ পড়ে থাকতে দেখি৷ সন্দেহ হওয়ায় ব্যাগটি খুলে দেখি তার ভিতরে নগদ টাকা, ব্যাংকের পাস বই ও আধার কার্ড রয়েছে৷ বুঝতে পারি, কোনও ব্যক্তি ভুলবশত মূল্যবান নথি সমেত ব্যাগটি ফেলে গিয়েছে৷ দেরি না করে সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় কোতয়ালী থানায় গিয়ে ব্যাগটি জমা দিই৷’’

আরও পড়ুন: নদীবক্ষে রয়্যাল বেঙ্গল পেটানোর তদন্ত শুরু বন দফতরের

থানায় ডিউটি অফিসারের হাতে প্রয়োজনীয় নথি সমেত ব্যাগটি তুলে দিয়ে তা সঠিক ব্যাগের মালিকের কাছে পৌঁছে দেওয়ার আর্জি জানান৷ জলপাইগুড়ি কোতয়ালী থানায় পুলিশ অফিসার সঞ্জু বর্মন বলেন, ‘‘এই ধরনের সৎ ব্যক্তিরা এগিয়ে আসলে আমাদের থানায় যে সব মিসিং কেসগুলি আসে তার অনেকটাই সহজে সমাধান করা সম্ভব৷’’ সঠিক ব্যক্তির কাছে প্রমান দেখে ব্যাগটি ফেরৎ দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। একই সঙ্গে রতনবাবুকে এই কাজের জন্য ধন্যবাদ জানান থানার পুলিশ কর্তারা৷

----
-----