মদ বিক্রির প্রতিবাদ করায় ছেলের হাতে আক্রান্ত মা

স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: বাড়িতে মদ বিক্রির প্রতিবাদ করায় ছেলের হাতে আক্রান্ত হতে হল মাকে। মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ইংরেজবাজার থানার জোত আড়াপুর গ্রামে। ঘটনায় মা ইংরেজবাজার থানায় ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্ত মায়ের নাম গায়েত্রী দাস (৬০)। অনেকদিন আগেই ভিন্ন হয়ে গিয়েছিল তাঁর বড়ো ছেলে সঞ্জয়। তবে একই বাড়িতে থাকে তাঁরা।

আরও পড়ুন: অগ্নিকাণ্ডে স্কুল ড্রিলের পাঠই কাজে লাগাল ক্লাস সিক্সের জেন

- Advertisement -

অভিযোগ, সঞ্জয় বাড়িতে মদ বিক্রি শুরু করে। তার মদ বিক্রি প্রকাশ্যে আসতে প্রতিবেশী ক্ষোভ প্রকাশ করে৷ এমনকি বাড়িতে এসে তাঁরা চিৎকার করে৷ ফলে বাড়ির পরিবেশ নষ্ট হচ্ছিল।

গায়েত্রী দেবীর মেয়ে সঙ্গীতা পাল জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে বাড়িতে ভীষণ চিৎকার চেঁচামেচি শুনে মা ও মেজ ভাই রিংকু প্রতিবাদ করে। এরপরে শুরু হয় বচসা। সেই সময় মায়ের মাথায় হাঁসুয়ার কোপ বসিয়ে দেয় ছেলে সঞ্জয় দাস।

আরও পড়ুন: জল ছাড়া দোল, বাজি ছাড়া কালীপুজো হলে রক্তবিহীন বকরিদ নয় কেন: বিশ্ব হিন্দু পরিষদ’

বাড়ির সদস্য ও প্রতিবেশীরা মাকে উদ্ধার করে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করেন৷ গায়েত্রীর দেবীর মাথায় গুরুত্বর আঘাত লাগে। তিনি এখন সেখানে চিকিৎসাধীন৷

গায়েত্রী দেবী বড় ছেলে সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন৷ অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে৷ পুলিশ এখন খতিয়ে দেখছে সঞ্জয় চোলাই মদ বিক্রি করত কীনা৷

আরও পড়ুন: ভগবানের আপন দেশে ইদের নমাজের জন্য খুলে গেল রক্তেশ্বরী মন্দির

Advertisement
---