বিজেপি কর্মীকে লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারধরে অভিযুক্ত শাসক

    স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: ফের আক্রান্ত বিরোধীদলের কর্মী৷ অভিযোগের তির শাসকদলের বিরুদ্ধে৷ অভিযোগ, প্রচার সেরে বাড়ি ফেরার পথে মালদহর বামনগোলা থানার কাশিপুরে শাসকদলের হাতে আক্রান্ত হন বিজেপি কর্মী। লোহার রড, লাঠি দিয়ে তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়৷

    গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে ভরতি করা হয়েছে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে৷ আহত বিজেপি কর্মীর নাম পরশুরাম সরকার(৪৫)। বাড়ি ওই এলাকাতেই।

    আরও পড়ুন: মৃত্যুদণ্ড আসলে ঠান্ডা মাথায় খুন, সমালোচনা নির্ভয়া ধর্ষকদের

    - Advertisement -

    দলীয় সূত্রের খবর, ওই এলাকার জেলা পরিষদের বিজেপির প্রার্থী কাঞ্চনা সিং মণ্ডলের হয়ে প্রচারে গিয়েছিলেন তিনি। শুক্রবার রাতে প্রচার সেরে বাড়ি ফিরছিলেন। অভিযোগ, ফেরার পথে স্থানীয় তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা তাঁর পথ আটকায় এবং তাঁকে লাঠি, লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারধর শুরু করে।

    মারধরের চোটে চোখে এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরুতর আঘাত লাগে। জখম বিজেপি কর্মীর চিৎকারে গ্রামবাসীরা ছুটে এলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়।

    আরও পড়ুন: ভাইরাল সিনে বাল ঠাকরে

    গ্রামবাসীরা তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় মুদিপুকুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায়৷ আঘাত গুরুতর থাকায় সেখান থেকে তাঁকে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন। বিজেপির অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে বামনগোলা থানার পুলিশ।

    যদিও এই ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেছে কিনা তা পুলিশের পক্ষ থেকে স্পষ্টভাবে জানানো হয়নি। ঘটনার জেরে ফের উত্তপ্ত জেলার রাজনীতি। যদিও তৃণমূলের পক্ষ থেকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

    আরও পড়ুন: কারখানায় শ্রমিকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

    Advertisement ---
    ---
    -----