‘তৃণমূলের নৈতিক অধিকার নেই শহিদ দিবস পালনের’

স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: ২১ শের সমাবেশ উপলক্ষ্যে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল কাতারে কাতারে মানুষ৷ আর ঠিক তখনই শনিবার মালদহে সাংবাদিক সম্মেলন করে শহিদ দিবসকে কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়৷

তৃণমূল কংগ্রেসের শহিদ দিবসকে প্রবল কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘‘একদিন আইডেন্টিটি নো ভোট এই দাবি নিয়ে যুব কংগ্রেসের ১৩ জন কর্মী কলকাতার রাজপথে শহিদ হয়েছিল। আজকে তৃণমূল কংগ্রেসের শহিদ দিবস পালন করার কোনও নৈতিক অধিকার নেই। আজ যেটা হচ্ছে এটা মেকি সমাবেশ। বাংলার গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে শাসকদল।’’

আরও পড়ুন: নেতাজির জন্মদিনে মমতাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বাংলায় মোদী

এদিন দক্ষিণ দিনাজপুরে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে যাওয়ার পথে মালদহতে সাংবাদিক সম্মেলন করেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়৷ সেখানেই পঞ্চায়েত নির্বাচনের পরবর্তী সময় বিজেপি থেকে জয়ী অনেক জনপ্রতিনিধিরা তৃণমূলে যোগ দিচ্ছে প্রশ্ন করেছিলেন সাংবাদিকরা৷ এই প্রশ্নে মুকুল রায় বলেন, ‘‘পুলিশ মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে৷ তার জেরেই এই ঘটনা ঘটছে৷’’

তিনি শাসক দলকে আরও কটাক্ষ করে বলেন, ‘‘জেলার পুলিশ সুপার হয়ে গিয়েছেন জেলা সভাপতি৷ থানার ওসি, আইসি হয়ে গিয়েছে ব্লক সভাপতি। তৃণমূল সিপিএম-এর থেকেও খারাপ চোর তাড়াতে ডাকাত ডেকে এনেছি।’’

আরও পড়ুন: একুশের ভিড়ে লক্ষীলাভ সোনাগাছির

প্রসঙ্গত, শনিবার তৃণমূল কংগ্রেসের শহিদ দিবস উপলক্ষ্যে ধর্মতলায় সভা করে তৃণমূল কংগ্রেস। সভায় যোগ দিয়েছিলেন বহু তৃণমূল কর্মী, সমর্থকরা। তুমুল বৃষ্টি উপেক্ষা করেই ধর্মতলায় সারি সারি মাথার ভিড় দেখা গিয়েছিল এদিন। সভায় বক্তব্য রাখেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অন্যান্য নেতারা। বিজেপি ও কেন্দ্রীয় সরকার ছাড়াও কংগ্রেস, সিপিআইএম-র কড়া সমালোচনা করেন মমতা।

----
-----