কোন ট্রেনগুলি বদলাল রেল ব্যবস্থাকে? দেখে নিন

নয়াদিল্লি: গত চার বছরে কতটা বদলেছে রেলব্যবস্থা? শুধু উত্তরই নয়, মিলল প্রমাণ৷ সামনে এসেছে পাঁচটি নাম৷ যা বদলেছে রেল ব্যবস্থাকে৷ নতুন ট্রেনগুলিতে রয়েছে আধুনিকত্বের ছোঁয়া৷ শুধু তাই নয়, দীর্ঘদিনের জীর্ণ পরিকাঠামোকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ৷ যেখানে যাত্রীরা পাবেন সমস্ত রকম বিলাসবহুল পরিষেবা৷ জেনে নিন তালিকাতে স্থান পেল কোন ট্রেন৷

১) অনুভূতি কোচেস-ট্রেনটিতে যাত্রীরা পাবেন বিমানের ন্যায় আধুনিক পরিষেবা৷ যেখানে থাকছে বিশেষ ধরণের হেলানো, পা-দানি যুক্ত সিট৷ এখানেই শেষ নয়, প্রত্যেক সিটের পিছন দিকে থাকছে LCD ডিসপ্লে, মোবাইল ও ল্যাপটপ চার্জের সুযোগ৷ এছাড়া, উন্নতমানের টয়লেট, স্লাইডিং ডোরস এবং প্রত্যেক সিটের জন্য আলাদা অ্যাটেনডেন্টও থাকছে৷

- Advertisement -

২) তেজাস এক্সপ্রেস-প্রতিঘন্টায় ২০০ কিমি বেগে ছুটবে ট্রেনটি৷ থাকছে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা৷ আপাতত, মুম্বই-কারমালি রুটে দৌড়বে তেজাস৷ ফিচারগুলির মধ্যে থাকছে আরামদায়ক সিট, LCD স্ক্রিন (প্রত্যেক জন্য), অটোমেটিক দরজা,স্পর্শহীন জলের কল, সিসিটিভি ক্যামেরা, চা-কফি তৈরির মেসিন সহ একাধিক আধুনিক সুযোগ৷

৩) হামসাফার এক্সপ্রেস-পুরো ট্রেনটিতেই যাত্রীরা পাবেন এয়ার-কন্ডিশননের পরিষেবা৷ ট্রেনটিতে রয়েছে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা৷ তার মধ্যে বিশেষ উল্লেখযোগ্য হল সিঙ্গল-পিস সাইড লোয়ার বার্থ৷ প্রত্যেক বার্থে থাকছে আলাদা চার্জিং পয়েন্ট, রিডিং লাইট, উপরের বার্থে চড়ার উন্নত ল্যাডার, হাইজিনিক টয়লেট ইত্যাদি৷

৪) উৎকৃষ্ট ডাবল ডেকর এয়ার-কনডিশনড যাত্রী (ইউডিএওয়াই) এক্সপ্রেস ট্রেনটির যাত্রাপথগুলি থাকছে যথাক্রমে কোয়েম্বাটুর-ব্যাঙ্গালুরু, ব্যান্ড্রা-জ্যামনগর, বিশাখাপত্তনম-বিজয়াওয়াডা৷ বিসনেস ক্লাস ডাবল-ডেকর আরামদায়ক সিট, ওয়াই-ফাই, ডাইনিং এরিয়া সহ অন্যান্য আধুনিক সার্ভিসগুলি৷

৫) মহামানা এক্সপ্রেস-এখানেও যাত্রীরা পাবেন একাধিক আধুনিক পরিষেবা৷ যার মধ্যে আপার বার্থের ওঠার ল্যাডার থেকে শুরু করে থাকছে LED লাইটস্ পর্যন্ত৷ এছাড়াও, টয়লেট, আয়না , ডাস্টবিন, ওয়াটার ট্যাপ ইত্যাদিও থাকছে৷

Advertisement
---