এই চার মন্ত্র বলেই ভাগ্য ফেরান দীপাবলীতে

ভাল-খারাপ নিয়েই আমাদের জীবন। সবসময় যে চলার পথ মসৃণ হবে তা নয়৷ কিন্তু প্রতিকূল পরিস্থিতির নাগপাশে জড়িয়ে মানুষের মনে একটাই প্রশ্ন উঁকি দেয়, “আমার ভাগ্য কবে ফিরবে?” জ্যোতিষশাস্ত্র বলে, এই চারটি মন্ত্র নিয়মিত পাঠ করলে আপনার জীবনে খুশির সূর্যোদয় হবেই হবে!

গণেশের মন্ত্র: ধর্মীয় গুরুদের মতে এই মন্ত্রটি দিনে অন্তত ১০৮ বার পাঠ করলে ফল মিলতে বাধ্য।বদলে যাবে জীবন। যারা এই সময় খুব দুঃখের মধ্যে আছেন, তারা আজ থেকেই এই মন্ত্রটি পাঠ করা শুরু করে দিন। মন্ত্রটি হল- “ওম সৌভাগ্য-বর্ধনাহাহ নমহঃ।” প্রসঙ্গত, মন্ত্রটি পাঠ করার সময় মনে কোনও খারাপ চিন্তা আনবেন না। তাহলেই সুফল মিলতে শুরু করবে।

লক্ষ্মী মন্ত্র: অর্থ, যশ, উন্নতি এবং সমৃদ্ধির পথ প্রশস্ত করে মা লক্ষ্মীর এই মন্ত্রটি। শুধু তাই নয়, সব ধরনের বাধা পেরিয়ে জীবনে যাতে শান্তি আসে, স্থিরতা আসে সে দিকেও খেয়াল রাখে। একথায় বলা যাতে পারে সার্বিক খুশির চাবিকাঠি হল এই মন্ত্রটি।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, বুধবার থেকে মন্ত্রটি পাঠ করা শুরু করুন। তবে তার আগে মা লক্ষ্মীর ছবিতে ফুল দিন। ধুপ -ধূনো জ্বালান। তারপর মন্ত্রটি পাঠ করা শুরু করুন। দিনে পাঁচ বার, টানা ১১ দিন এই লক্ষ্মী মন্ত্রটি পাঠ করলেই ফল মিলবে। মন্ত্রটি হল- “ওম শ্রিম অখন্ড সৌভাগ্য ধন সমৃদ্ধিয়াম দেহি দেহি নামাহ।”

দূর্গা মন্ত্র: এই মন্ত্রটি পাঠ করলে ভাগ্য তো ফিরবেই, সেই সঙ্গে জীবন খুশিতে ভরে উঠবে৷ অশুভ ছায়া সঙ্গ ছাড়বে, আটকে যাওয়া কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন এবং খারাপ চিন্তা মন থেকে দূর হবে। প্রসঙ্গত, মন্ত্রটি প্রতি দিন কম করে ১০৮ বার জপ করতে হবে, তবেই মিলবে সুফল। মন্ত্রটি হল- “দেহি সৌভাগ্য়িয়াম আরোগ্যিয়াম দেহি মে পরামম সুখাম কুপম দেহি জায়াম দেহি, যশো দেহি দ্বিখোজাহী।”

রিদ্ধি সিদ্ধি মন্ত্র: কর্মক্ষেত্রে এবং ব্যবসায় ভাগ্য ফেরাতে এই মন্ত্রটি দারুনভাবে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে জীবনে খুশির রাস্তা যাতে প্রশস্ত হয় শুধু তাই নয় অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ভাল করতেও এই মন্ত্রটি সাহায্য করে। প্রসঙ্গত, দিনে কম করে পাঁচ বার মন দিয়ে মন্ত্রটি পাঠ করলেই ভাগ্য ফিরতে শুরু করবে। রিদ্ধি সিদ্ধি মন্ত্রটি হল-“সাধক নাম জাপেহী লে লায়েই, হোহি সিদ্ধ আনিমাদিক পেয়ে।”

Advertisement
---