নাইটদের রয়্যাল বধের প্রহর গুনছে অর্ঘ-গুড্ডু-সিরাজরা

শেখর দুবে, কলকাতা: এসি বাসটা প্রিন্সেপ ঘাটকে বাঁ-পাশে রেখে ধর্মতলার দিকে এগিয়ে চলেছে৷ বাসে ভিড় প্রায় নেই বললেই চলে৷ কলকাতায় এই দিকটায় জ্যামও সেরকম হয় না৷ তাই বেশ আয়েশ করেই বসে ছিলাম৷ ক্যাঁচচচচ… হঠাৎ ব্রেক কসল বাসটা৷ কী হল! সামনে তাকিয়ে দেখি ইয়া বড় জ্যাম ৷ বেশ বিরক্তই হলাম, এখানেও জ্যাম৷ কয়েক মিনিট অপেক্ষার পর নেমে এলাম বাস থেকে৷ সামনে তাকাতে চোখে পড়ল ফ্ল্যাগ হাতে ভিন্ন বয়সের ছেলেমেয়ে৷ নিজেই নিজেকে বললাম আজ তো কোন মিছিল, সমাবেশ, ধর্না কিছু রয়েছে বলে মনে পড়ছে না! ঠিক তখনই কানে এল, কেকেআর, কেকেআর, কেকেআর…৷

একটু এগিয়ে যেতেই খেয়াল করলাম ইডেনের কাছেই রয়েছি৷ এক প্রেমিক যুগলকে দেখলাম ইডেনের উলটো দিকের মাঠে একে অপরের ঘনিষ্ট হয়ে বসে রয়েছে৷ ওদের গায়ে জড়ানো রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের ফ্ল্যাগ৷ বেশ বুঝতে পারলাম কলকাতা নাইট রাইডার্স ওদের আরও কাছে নিয়ে এসেছে৷

একটা বলিউড সিনেমা দেখেছিলাম নাম মনে পড়ে না৷ ছবিটিতে একটা ডায়লগ ছিল ‘ইন্ডিয়া মে ক্রিকেট এক ধরম হ্যাঁ’৷ ডায়লগটা কতটা ঠিক কতটা ভুল জানি না৷ কিন্তু কলকাতা নাইট রাইডার্স যে বাংলার অনেক ক্রিকেটপ্রেমীর কাছেই নিজেদের লড়াইয়ের স্বরূপ সেটা মানি৷

- Advertisement -

কলকাতা নাইট রাইডার্স এই শব্দ বন্ধনীর মধ্যে এসে সুদূর অস্ট্রেলিয়ার ছেলে ক্রিস লিন হয়ে ওঠে পাড়ার প্রিয় বড় দাদা৷ দক্ষিণের দীনেশ কার্তিকের বড় বড় কাট আউটে ভরে উঠতে থাকে পাড়ার ক্লাবের দেওয়ালগুলো৷ আর ক্যারিবিয়ান সুনীল নারিন নিজের অজান্তেই হয়ে ওঠে কলকাতার ঘরের ছেলে৷ আর তারপর, সারা ইডেন জুড়ে আওয়াজ ওঠে কেকেআর, কেকেআর৷

সকালে বাড়ি থেকে বেরনোর সময় একগুচ্ছ কচিকাচা ছেলে পথ আটকে দাঁড়াল চাঁদা দাও বলে৷ এখন কী পুজো রে? চাঁদা কীসের? উত্তর পেলাম, ‘জানো না আজ কেকেআরের ম্যাচ আছে৷ পুজো দিতে হবে, কেক কিনতে হবে, অনেক ব্যাপার৷ ও তুমি বুঝবে না৷ সত্যি এই বাচ্চা বাচ্চা ছেলেগুলোকে ক্রীড়া সাংবাদিক হয়েও আমি বুঝতে পারি না৷ পকেট থেকে দশ টাকা বের করে দিলাম৷ এটা আজ নয়, প্রায় প্রতিবছর দেখি পাড়ার অর্ঘদীপ, শৌনক, রামধীন, গুডু, সিরাজদের৷ কেকেআরের বড় ম্যাচ থাকলে ওরা এভাবেই এর-ওর কাছ থেকে চাঁদা তুলে পুজো দেয়, কেক আনে৷ আর কেকেআর জিতে গেলে মিছিল বার করে৷

বুধবার সন্ধ্যে সাতটায় শৌনক-গুড্ডু-সিরাজরা আবার টিভির সামনে বসবে কেকেআরের জয়ে আশায়৷ প্লে-অফে রাজস্থানকে হারিয়ে নাইটদের ফাইনালের দিকে এক পা এগিয়ে যাওয়া প্রহর গুনছে ওরা৷

Advertisement ---
---
-----