চিকিৎসার টাকা খুইয়ে সর্বশান্ত বাংলাদেশী দম্পতি

হাওড়া: চিকিৎসা করাতে বাংলাদেশ থেকে হাওড়ায় এসেছিলেন মহম্মদ সাফিকুল ও তাঁর স্ত্রী পারভিন আখতার৷ কিন্তু ঘটনাচক্রে তাদের কাছ থেকে খোয়া গিয়েছে টাকার বান্ডিল৷ টাকা খুইয়ে ওই বাংলাদেশী দম্পতির এখন প্রায় সর্বশান্ত হওয়ার অবস্থা৷

জানা গিয়েছে, বাংলাদেশের মীরপুরের বাসিন্দা মহম্মদ সাফিকুল আলম(৩৫) ও স্ত্রী পারভিন আখতার (৩০) গত ১৯ ফেব্রুয়ারি হাওড়ায় এসে পৌঁছান৷ বালির একটি বেসরকারি ইনফার্টিলিটি ক্লিনিকে চিকিৎসা করাতে তারা হাওড়ায় এসেছেন৷ বালিতেই একটি ঘর ভাড়া নিয়ে থাকছেন তারা৷ ২৩ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করার দিন ঠিক হয়৷ সেই দিন থেকেই শুরু হয় চিকিৎসা৷

কিন্তু মঙ্গলবার চিকিৎসার বিল মেটাতে গিয়ে সাফিকুল দেখেন টাকার বান্ডিল গায়েব৷ কিভাবে টাকা খোয়া গেল কিছুতেই প্রথমে মনে করতে পারছিলেন না৷ পরে মনে পরে জেরক্সের দোকানে গিয়ে ফেলে এসেছিলেন একটি প্যাকেট৷ সেই প্যাকেটেই রাখা ছিল টাকার বান্ডিল৷

- Advertisement -

সাফিকুল আলম জানিয়েছেন, মঙ্গলবার ওই ক্লিনিক থেকে পাসপোর্টের ফটোকপি চাওয়া হয়েছিল৷ ক্লিনিক থেকে বেরতেই কাছেই একটি জেরক্সের দোকান আছে৷ সেখানেই গিয়েছিলাম৷ জেরক্স করার পর টাকা দিতে গিয়ে একটি প্যাকেট ফেলে আসি৷ ওখানেই ৬৫ হাজার টাকা রাখা ছিল৷ পরে দোকানে গিয়ে আর প্যাকেটটি খুঁজে পাইনি৷ তিনি বালি থানায় টাকা চুরির অভিযোগ জানিয়েছেন৷ পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷

Advertisement ---
---
-----