৪৫ লক্ষ টাকা করে ৩০০ নাবালিকাকে আমেরিকায় বিক্রি করেছে এই ব্যক্তি

প্রতীকি ছবি

মুম্বই: ধরা পড়ল বড়সড় নাবালিকা পাচার চক্রের চাঁই। মুম্বই পুলিশের হাতে গ্রেফতার আন্তর্জাতিক পাচার চক্রের মূল পাণ্ডা। রাজুভাই গামলেওয়ালা। দিনের পর দিন সে আমেরিকায় নাবালিকাদের পাচার করত বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশ জানতে পেরেছে, ২০০৭ থেকে এই পাচারের কাজ শুরু করে গুজরাতের বাসিন্দা ওই ব্যক্তি। আমেরিকায় ছিল তার বেশ কিছু ক্লায়েন্ট। একেক জন ইশুর জন্য ৪৫ লক্ষ টাকা করে নিত ওই ব্যক্তি। তবে ওই নাবালিকারা বর্তমানে কোথায় আছে, তা স্পষ্ট নয়। গত মার্চ মাসে ওই পাচারচক্রের সঙ্গে যুক্ত কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

পাচার হওয়া নাবালিকাদের বয়স ১১ থেকে ১৬-র মধ্যে। এরা সবাই গুজরাতের বাসিন্দা বলেই জানা গিয়েছে। এক পুলিস অফিসার জানিয়েছে, ”বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ওই সব নাবালক-নাবালিকাদের বাবা-মায়েদের আর্থিক অবস্থা খারা হওয়ায় তাদের এইভাবে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে।” আমেরিকা থেকে অর্ডার পেলেই ওই ব্যক্তি তার দলের লোকজনকে বলতেন, গুজরাত থেকে কোনও দরিদ্র পরিবারের ছেলেমেয়েকে তুলে আনার জন্য।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, ওই নাবালিকাদের পাচারের আগে মেক-আপ করিয়ে পাসপোর্ট করানো হত। আর সেই মেক-আপ করতে গিয়েই চক্রের খোঁজ পেয়েছিল পুলিশ।

প্রীতি সুদ নামে এক মহিলা জানতে পারেন এক পার্লারে একটি পার্লারে দুই নাবালিকাকে মেক আপ করানো হচ্ছে। তিনি গিয়ে দেখেন, দুই নাবালিকাকে এমনভাবে মেক আপ করানো হচ্ছে যেন তাদের কোনও যৌনপল্লীতে নিয়ে যাওয়া হবে। কিন্তু খোঁজ নিয়ে বুঝতে পারেন, চক্র আসলে আরও অনেক বড়। এরপরই পুলিশ তদন্ত শুরু করে।

Advertisement ---
-----