‘বীরে দি ওয়েডিং’র রিভিউ দিয়ে ভাইরাল এই মহিলা

মুম্বই : এ বছরে প্রথমদিনে ১০.৭০ কোটি আয় করে, বক্স অফিসে তৃতীয় স্থান চলে এসেছে ‘বীরে দি ওয়েডিং’৷ দর্শকের ভালো খারাপ প্রতিক্রিয়া নিয়েই এগোচ্ছে এই ছবি৷ নারী-কেন্দ্রিক এই ছবিতে চার বান্ধবীর বন্ধুত্বের সম্পর্ককেই হাইলাইট করা হয়েছে৷ তাদের ব্যক্তিগত জীবনের সমস্যাকে লড়াই করে জিতে নেওয়ার গল্প ফুটে উঠেছে রূপোলি পর্দায়৷ ছবির নানানরকমের রিভিউয়ের মাঝে একজন মহিলা এখন ভীষণরকম ভাইরাল নেটদুনিয়ায়৷ মধ্যবয়স্কা এই মহিলা ছবিটির সম্বন্ধে এমন কয়েকটি কথা বলেছেন, যার ভিডিও এখন প্রত্যেকের ফোনে ফোনে ঘুরছে৷

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত তাঁর কথায় কোনও আড়ষ্টতা নেই৷ ছবিটির খারাপ দিক এবং ভালো দিক পরিষ্কার ভাষায় এমন ভাবে বুঝিয়েছেন যে পাব্লিক এখন তাঁরই কথা শুনে ছবিটি দেখবেন কিনা চিন্তা করে দেখছে৷ প্রথমেই শুরু করলেন ছবির ভালো দিকটা দিয়ে৷ “ছবিটা ভিস্যুয়ালি দারুণ সুন্দর৷ সুন্দরী অভিনেত্রী, সুন্দর লোকেশন, ফ্যাশানেবেল জামা-কাপড়৷ কিন্তু ফিল্ম টা একেবারেই খারাপ৷ কিছু ফিলই করতে পারলাম না ছবিটা দেখে৷

কারণ ছবিটাতে শুধু প্রোডাক্ট প্লেসমেন্টই হয়েছে৷ অ্যাক্টিংয়ের নামগন্ধ নেই৷” এ ধরণের বিভিন্ন হাস্যকর কথা বলে গিয়েছেন ভিডিও জুড়ে৷ তিনি আরও বললেন, “তবে এই ছবি থেকে আমি একটা জিনিস শিখেছি৷ যেমন, তোমার যদি মন খারাপ হয়, আর তুমি যদি বড়োলোক হয়ও৷ তাহলে তুমি থাইল্যান্ড যেতে পার৷” সাইবারবাসীর এই লাইনটি ইতিমধ্যে ফেভারিট হয়ে উঠেছে৷ পরে তিনি এও বললেন যে তাঁর একমাত্র শিখা তালসানিয়া এবং সুমি বিয়াসের অভিনয় সাবলিল লেগেছে৷ বাকিরা কেবল সুন্দর আউটফিটে ঘুরে বেড়াচ্ছিল৷

- Advertisement -

দিল্লির ফুচকার ব্যাপারে তিনি জানান, “দিল্লির বেশ ভালো ভালো লোকেশন দেখিয়েছে ছবিতে৷ তবে একটা জিনিস ভুল দেখিয়েছে৷ দিল্লিতে সবথেকে ভালো ফুচকা পাওয়া যায় গ্রিন পার্কে৷ কিন্তু ওঁরা সুন্দরনগর দেখিয়েছেন৷” মিউজিকের ব্যাপারেও তিনি জানালেন ইউটিউবেই গানগুলো শোনা বেটার৷ কারণ ছবিতে একটি গানও ভালো লাগেনি৷ দৃশ্যগুলোর সঙ্গে গানের কোনও মিলই নেই৷

লাস্ট বাট নট দ্য লিস্ট, পুরো ছবিটা মন দিয়ে দেখলেও স্বরা ভাস্করের ওপর মহিলাটি যেন একটু বেশিই মন দিয়েছেন বলে মনে হল৷ তিনি জানিয়েছেন, “স্বরার ডায়লগ গুলো দারুণ ছিল৷ কিন্তু আমার মনে উনি আগে কখনও বড়োলোক মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেননি৷ এর আগে অবলা নারীর এং গ্রামের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করে এসেছেন৷ তাই এই প্রথমবারই করলেন৷ আর প্রথম প্রথম এতো টাকা দেখে স্বরা কী করবেন নিজেও ঠিক করে উঠতে পারছেন না৷”

এমনকি তিনি ছবির জামাকাপড় নিয়ে বেশ মজার মন্তব্য করেছেন, “জামা কাপড় গুলো দেখলেই আপনার মনে হবে এগুলো এখুনি দর্জির কাছে নিয়ে যাই৷ দারুণ সব ড্রেস পড়েছেন অভিনেত্রীরা৷ তবে ছবিটার ভেতরটা একেবারেই ফাঁপা৷”
তাঁর নাম এখনও প্রকাশ্যে না এলেও তিনি রীতিমত ভাইরাল হয়ে উঠেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ প্রিয়া প্রকাশ ভ্যারিয়ারের ‘উইঙ্ক’র থেকেও দ্রুতগতিতে শেয়ার হয়ে চলেছে তাঁর ভিডিও৷ মহিলা কিন্তু বেশ স্মার্টলিই সাজিয়ে বলেছেন ছবিটির ব্যাপারে৷ তাঁর এই অনেস্ট রিভিউতে ছবির নায়িকারা কোনও মন্তব্য করবেন কিনা সেটাই এখন অপেক্ষার বিষয়৷

Advertisement
---