আগ্নেয়াস্ত্র-সহ কোচবিহারে গ্রেফতার তিন

স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: গোপন সূত্রে খবর পেয়ে কোচবিহারের তুফানগঞ্জ থানা এলাকার বলরামপুর থেকে গত ১৮ মার্চ দুই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ তাদের কাছ থেকে তিনটি পিস্তল উদ্ধার করে সঙ্গে আট রাউন্ড গুলি৷

পরে এই দুই ব্যাক্তিকে নিজেদের হেজাফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে গত কাল রাতে আরও এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ তার কাছ থেকেও দু’টি পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ পুলিশ জানিয়েছে, এরা বিভিন্ন জনের কাছে এই পিস্তল গুলি বিক্রি করার ছক করছিল৷

আরও পড়ুন: পরীক্ষা চলাকালীন মাইক ব্যবহার করে রাজ্যের প্রচার করলেন মন্ত্রী

- Advertisement -

কোচবিহারের পুলিশ সুপার ডঃ ভোলানাথ পাণ্ডে জানিয়েছেন, গত ১৮ মার্চ পুলিশ প্রভাকর দাস ও জয়নুর রহমানকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ তুফানগঞ্জ থানার বলরামপুর এলাকার তেরঙ্গি মোড় থেকে৷ প্রভাকর দাসের বাড়ি দিনহাটার সাহেবগঞ্জ এলাকায় জয়নুর রহমানের বাড়ি তুফানগঞ্জে৷ এদের কাছ থেকে তিনটি অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ৷

গ্রেফতারের পর এদের সাতদিনের পুলিশ রিমান্ড নেয় পুলিশ৷ এর পর তাঁদের দু’জনকে জিজ্ঞাসা বাদের পর নারায়ণ বর্মণ নামে তুফানগঞ্জের আরেক যুবক সম্পর্কে জানতে পারে পুলিশ৷ এর পরে ধৃত দুই জনকে দিয়ে নারায়ণকে ফোন করিয়ে তুফানগঞ্জের কালীবাড়ি এলাকায় আসতে বলা হয়৷ সেখান থেকেই পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে নারায়ণের কাজ থেকেও দু’টি পিস্তল উদ্ধার করে৷

আরও পড়ুন: বিহারে বন্দি রাজ্যের দুই নর্তকীকে উদ্ধার করল পুলিশ

সব মিলিয়ে তিন জনের কাজ থেকে পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়, যার মধ্যে একটি নাইন এমএম, তিনটি সেভেন পয়েন্ট সিক্স ফাইভ এবং একটি ওয়ান শাটার উদ্ধার করা হয়েছে৷ এছাড়াও সাতটি ম্যাগাজিন ও দশ রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়েছে৷ পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, আগ্নেয়াস্ত্র গুলি বিক্রি করার উদ্দেশ্য ছিল তাঁদের৷ তবে, কোথা থেকে এই অস্ত্র তাঁরা নিয়ে এসেছিল, সেই বিষয়ে কিছু জানায়নি পুলিশ। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এই চক্রের সঙ্গে আরও কারা জড়িত আছে ও এর আগে কাদের কাছে আগ্নেয়াস্ত্র তাঁরা বিক্রি করেছে, সেই বিষয়ে খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: বধূ হত্যার অভিযোগে উত্তাল বাঁকুড়ার গ্রাম

Advertisement ---
---
-----