গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কাউন্সিলার

কৃষ্ণনগর: কল্যানী পুরসভার ১৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলারকে লক্ষী ওঁরাওকে লক্ষ্য করে গুলি চালালো দুষ্কৃতিরা। ঘটনাটি ঘটে কল্যানী ব্যারাকপুর এক্সপ্রেস ওয়েতে। তবে অল্পের জন্য বেঁচে যান ক্লাউন্সিলর। গুলি লক্ষ্য ভ্রষ্ট্র হয়। জানা গিয়েছে ঘটনার মূলে রয়েছে সেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব।

রবিবার রাত সাড়ে ৭টা নাগাদ এক সহকর্মীকে নিয়ে গাড়ি করে কল্যানীতে তার ওয়ার্ড অফিসে আসছিলেন কাউন্সিলর লক্ষ্মী ওঁরাও। তখনি তাঁর উপর গুলি চালায় দুষ্কৃতিরা। জানা গিয়েছে তাঁকে গুলি করার জন্য আগে থেকেই ব্যরাকপুর এক্সপ্রেসওয়ের ধারে একটি বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের সামনে অন্ধকারে দাঁড়িয়েছিল তারা। কাউন্সিলারের গাড়ি যখন ওই রাস্তায় আসা মাত্রই তাঁর গাড়িকে থামিয়ে প্রথমে গাড়ির কাঁচ ভাংচুর করে তারা।

এরপর তিন রাউন্ড গুলি করে তারা। এরপরেও কোনমতে বেঁচে যান লক্ষ্মী ওঁরাও ও গাড়ির চালক। লক্ষী ওঁরাও জানিয়েছেন, “আমি পুরসভায় দূর্ণীতি নিয়ে সরব হয়েছিলাম। সেই কারণেই আমাকে গুলি করে মারা চেষ্টা করা হয়েছে।” সুত্রের খবর বলছে গুলি চালিয়েছে তাঁর দলেরি বিরোধী গোষ্ঠীরা। মাটি তোলা নিয়ে বহু দিন ধরে দুর্নীতি চলছে এখানে। তা নিয়েই সরব হয়েছিলেন লক্ষ্মী ওঁরাও। তারই ফল এই আক্রমণ। তাঁর দলের পুরপ্রধান সুশীল তালুকদার বলেন, “ আমরা পুলিশকে ঘটনা সম্পর্কে বলেছি যথাযথ ব্যাবস্থা নিতে।” পুলিশ সূত্রের খবর শত্রুতার জেরেই ঘটেছে এই ঘটনা।

Advertisement
-----