গঙ্গাসাগরে বাজ পড়ে মৃত তিন, আহত পাঁচ

স্টাফ রিপোর্টার, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: প্রবল বৃষ্টি আর সঙ্গে ঘনঘন বজ্রপাত৷ এরই মধ্যে গঙ্গাসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে বাজ পড়ে মৃত্যু হল তিনজনের৷ আহত আরও পাঁচ৷ রবিবার দুপুরে দক্ষিণ ২৪ পরগনার মহিষমারির কাছে এই ঘটনা ঘটে৷ পাশাপাশি পাথরপ্রতিমাতেও বজ্রাঘাতে মৃত্যু হয়েছে একজনের৷

আরও পড়ুন: পাল্টে যাচ্ছে ‘সিভিক ভলান্টিয়ার্স’-এর নাম ও পোশাক

রবিবার সকাল থেকেই ফের আকাশের মুখভার৷ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় থেকে থেকেই শুরু হয়েছে বৃষ্টি৷ সঙ্গে ঘনঘন বাজ পড়া৷ আকাশে মেঘের ঘনঘটায় খুশিই হয়েছিলেন মহিষমারির একদল ছেলে৷ রবিবার ছুটির দিন৷ ঠিক হয় বন্ধুরা মিলে সাগরে যাবে মাছ ধরতে৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: মৃত্যুর পর কোথায় যায় আত্মা? উত্তর খুঁজতে সুখ ছেড়েছিলেন নচিকেতা

পরিকল্পনা মত মাছ ধরতে গিয়েছিলেন জনা দশেকের দলটি৷ কয়েকজন সাগরে মাছ ধরছিলেন৷ কয়েকজন নদীর ধারে ফুটবল খেলছিলেন৷ হঠাৎই বৃষ্টি আসায় তাঁরা একটি ত্রিপলের মধ্যে ঢুকে পড়েন৷ তখনই শুরু হয় বাজ পড়া৷ মৃত্যু হয় তিনজনের৷ পাঁচজন আহত হন৷ তাঁদের রুদ্রনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ মৃতদের নাম বাপি দাস, বরুণ কবি, বুদ্ধদেব কবি৷ এঁদের মধ্যে দু’জন স্কুলপড়ুয়া৷ একজন দশম শ্রেণিতে পড়ত৷ আরেকজন সপ্তম শ্রেণিতে৷

আরও পড়ুন: দুই ছাত্রের সঙ্গে সঙ্গমের ভিডিও ফাঁস হয়ে গেল শিক্ষিকার!

অন্যদিকে পাথরপ্রতিমার লক্ষ্মীনারায়ণপুরে নৌকা নিয়ে জগদ্দল নদীতে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন বছর ৪৯-এর শঙ্কর লায়া৷ ফেরার পথে বাজ পড়ে মৃত্যু হয় তাঁর৷ অন্যদিকে রায়দিঘির নারায়ণপুর হালদারেরঘেরিতে ঠাকুর তৈরি করছিলেন দুই ভাই সুপ্রভাত পাত্র ও গণেশ পাত্র। পাশেই একটি পোড়োঘরে বাজ পড়ে৷ গুরুতর আহত হন দুই ভাই৷ তাঁদের ডায়মন্ড হারবার মহকুমা হাসপাতলে ভর্তি করা হয়৷

Advertisement
---