হাওড়া: প্রকাশ্যে গুরুত্ব না দিলেও তৃণমূলের মাথাব্যথার কারণ যে এখন বিজেপি তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যে ফের স্পষ্ট হল৷ শুক্রবার দলের ছাত্র-যুব সমাবেশের মঞ্চ থেকে তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রীর ৪৮ মিনিটের বক্তৃতার সিংহভাগই ছিল বিজেপিকে আক্রমণ৷ তারমধ্যে ছিল বাজেট নিয়ে মোদী সরকারের সমালোচনা৷

রাজনৈতিক মহল মনে করছে, পঞ্চায়েত ও লোকসভা নির্বাচনের আগে এদিন দলের যুবাদের হাতে বেশ কয়েকটি ‘নির্বাচনী অস্ত্র’ তুলে দিলেন মমতা-

Advertisement

১. বিজেপি কোনও গভর্নেন্স জানে না। ১২,০০০ হাজার কৃষক ভারতবর্ষে আত্মহত্যা করেছে। কেন আজ পর্যন্ত কৃষকদের ঋণ মকুব করেনি?

২. বাজেটে কোনও মেকানিজম রাখেনি, কোনও টাকা সেভাবে দেওয়া হয়নি। হতাশার বাজেট, নার্ভাসনেসের বাজেট, ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার ভয়।বিজেপি শুধু হিন্দু-মুসলমান চেনে৷

৩. বিজেপি শুধুমাত্র টাকা ছাড়া আর কিছু চেনে না। কিন্তু টাকা দিয়ে বাংলা জয় করা যায় না।
৪. সিপিএম এবং কংগ্রেস-বিজেপির সঙ্গে বোঝাপড়া আছে।
৫. নোট বাতিলের পর কত কালো টাকা উদ্ধার হয়েছে৷ আজ পর্যন্ত কোনও শ্বেতপত্র প্রকাশ হয়নি৷
৬. কন্যাশ্রীর মেয়েরা আমাদের গর্ব, তাদের স্কলারশিপ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। কৃষকদের জন্য খাজনা মুকুব করা হয়েছে।

৭. বিনা পয়সায় ক্রপ ইনস্যুরেন্স করে দেওয়া হয়েছে। ৬৯ লক্ষ কিষাণ ক্রেডিট কার্ড দেওয়া হয়েছে।
৮. ২৫ লক্ষ গরীব লোকের বাড়ি তৈরি করে দিয়েছি আমরা। ২৫০০০ কিলোমিটার রাস্তা তৈরি করে দিয়েছি গ্রামে।
৯. একশ দিনের কাজে, ক্ষুদ্র-মাঝারি শিল্পে, ই-টেন্ডারে, কৃষিতে আমরা এক নম্বরে।
১০. আমরা কন্যাশ্রীর মত রূপশ্রী স্কিম তৈরি করে দিয়েছি। ছয় লক্ষ মেয়েরা এই সুবিধা পাবে। আমরা শারীরিক প্রতিবন্ধীদের জন্য ‘মানবিক’ স্কিম শুরু করেছি।

----
--