অসমের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে FIR করল তৃণমূল

ফাইল চিত্র

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার এফআইআর দায়ের করে অসম পুলিস। শুক্রবার কলকাতায় ফিরে তারই পাল্টা পদক্ষেপ নিল তৃণমূল৷ তৃণমূলের পক্ষ থেকে এবার অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়ালের বিরুদ্ধে এফআফআর দায়ের করা হল৷ শিলচর বিমানবন্দরে হেনস্থার অভিযোগে বিধায়ক মহুয়া মৈত্র আলিপুর থানায় এদিন একটি পৃথক অভিযোগ দায়ের করেন৷ অন্যদিকে দুই সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও মমতা বালা ঠাকুর বিমানবন্দর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷

বৃহস্পতিবার পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের নেতৃত্বে অসমে যায় তৃণমূলের ৮ সদস্যের প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলে ছিলেন মহুয়া মৈত্র, সুখেন্দু শেখর রায়, ডাঃ কাকলি ঘোষ দস্তিদার, মমতা বালা ঠাকুর প্রমুখ। শিলচর বিমানবন্দরে নামতেই পুলিশ তাদের ঘিরে ফেলে বলে অভিযোগ৷ তাদেরকে বাইরে বেরোতে না দেওয়ায় মহিলা সাংসদের সঙ্গে অসম পুলিশের ধস্তাধস্তি শুরু হয়৷ শেষ পর্যন্ত শুক্রবার সকালের বিমানে কলকাতায় ফেরেন তারা৷

ঘটনার প্রতিবাদে শনি ও রবিবার দুদিন তৃণমূল রাজ্য জুড়ে কালা দিবস পালন করবে বলেও জানিয়ে দেওয়া হয় দলের তরফে৷ জেলায় জেলায়, ব্লকে ব্লকে কালো ব্যাজ পড়ে পালন হবে কালা দিবস৷ সকল মানুষকে সামিল হওয়ার আহবান জানায় তৃণমূল সরকার৷ তারপর অসমের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তিনটি পৃথক অভিযোগ দায়ের করেন৷

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবারই দলীয় প্রতিনিধিদের সঙ্গে পুলিশের এমন আচরণকে ‘সুপার এমারজেন্সি’ হিসাবে বর্ণনা করেন তৃণমূলের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘটনাটিকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে উল্লেখ করেছেন। পাশাপাশি, অসমে নাগরিক পঞ্জিকরণের ফলে দেশে গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি করতে চাইছে বিজেপি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্য তুলে ধরে আসরে নামে গেরিয়া শিবির। তাদের একাংশের প্রশ্ন, এমন মন্তব্যের জন্য বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কেন মামলা দায়ের করা হবে না।

Advertisement ---
---
-----