সিপিএম কর্মীকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে

বারুইপুর: পুরানো শত্রুতার জেরে সিপিএম কর্মীকে খুন করার অভিযোগ উঠল এক স্থানীয় তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে৷ ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার কাকদ্বীপ থানা এলাকায়৷ মৃত কর্মীর নাম নরেশ হালদার৷ সোমবার রাতে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে কাকদ্বীপ মহকুমা হাসপাতাল ও পরে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মারা যায় নরেশ৷

এদিকে সিপিএম কর্মীকে খুনের ঘটনায় নাম জড়িয়েছে স্থানীয় তৃণমূল নেতা ভীষ্ম পাত্রের৷ যদিও নেতার ঘনিষ্ঠ অনুগামীরা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷

একসময় ভীষ্মও সিপিএম করত৷ কিন্তু পালা বদলের পর সে তৃণমূলে যোগ দেয়৷ তবে রাজনৈতিক নানা বিষয় নিয়ে দু’জনের মধ্যে মত বিরোধ লেগেই থাকত৷ দীর্ঘদিন ধরেই ছিল এই মতবিরোধ৷ অভিযোগ এই বিবাদের কারণেই খুন হতে হয়েছে নরেশকে৷

- Advertisement -

মৃত সিপিএম কর্মীর পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সোমবার বাজারে গিয়েছিল নরেশ৷ তখন তাকে নিজের বাড়িতে ডেকে পাঠায় ভীষ্ম৷ অভিযোগ সেখানেই তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়৷

নরেশকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন তার পরিবারের সদস্যরা৷ রাতেই কাকদ্বীপ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ডায়মন্ড হারবার জেলা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়৷ সেখান থেকে বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানেই মারা যায় নরেশ৷

Advertisement ---
---
-----