প্রকাশ্যে পুলিশের উর্দি খুলে নেওয়ার হুমকি বীরভূমের এই তৃণমূল নেতার

সিউড়ি: প্রকাশ্যে পুলিশকে হুমকি দিতে শোনা গেল তৃণমূল নেতাকে৷ শনিবার ছিল বাবুইজোড়ে তৃণমূলের আদিবাসী সম্মেলন৷ সেখানেই প্রকাশ্যে পুলিশকে হুমকি দেন খয়রাশোল ব্লক সভাপতি দীপক ঘোষ৷ বীরভূমের কাকরতলা থানা ওসির উর্দি খুলে নেওয়ার হুমকি দেন এই তৃণমূল নেতা৷ পাশাপাশি তিনি বলেন, এটা অনুব্রত মণ্ডলের এলাকা৷ এখানে অন্য কারও কোনও গা জোয়ারি সহ্য করা হবে না৷

স্থানীয় সূত্রে খবর, স্থানীয় বাবুইজোড় গ্রামে আদিবাসী সম্মেলনে প্রকাশ্য সভা থেকে এই হুমকি দেন বীরভূমের এই তৃণমূল নেতা৷ দীপক ঘোষ বলেন, ‘‘প্রশাসনকে সাবধান করছি৷ আমার ছেলেরা থানায় গিয়ে বঞ্চিত হলে আপনাকে আমি গ্রাম থেকে বের করে দেব৷ এটা ভুলে যাবেন না এই দলটা করতে গিয়ে অনেকের প্রাণ গেছে৷ আমি চাই না আর কারও প্রাণ যাক৷’’

- Advertisement -

এরপরই দীপক ঘোষের হুমকি, ‘‘যদি থানায় বসে ভাবেন যে মস্তানদের নিয়ে আপনি রাজপাট চালাবেন তাহলে আপনার উর্দিতা আমি খুলে নেব৷ চাইলে প্যান্টও খুলে নিতে পারি আপনার৷ মনে রাখবেন এটা আমার এলাকা। প্রধানকেও সাবধান করে দিচ্ছি৷ আমার ছেলেদের গায়ে হাত পড়লে আমি তোমার হাত ভাঙব। তোমাকেও গ্রাম ছাড়া করে দেব। কারণ এটা অনুব্রত মণ্ডলের এলাকা।’’

গত লোকসভা ভোটে এখানে বিজেপি বেশ ভালোই মাথাচাড়া দিয়েছিল৷ পঞ্চায়েত ভোটে দাঁত ফোটাতে না পারলেও চোরা গোপ্তার গেরুয়া শিবির যে এখানে হাত-পা মেলছে তা ভালোই বুঝছে শাসকদল৷ এদিন দীপক ঘোষ আকারে ইঙ্গিতে তাই বুঝিয়ে দেন, বিরোধী শিবির মাথা তুলতে চাইলে তা অত সহজ হবে না৷

এ বিষয়ে তৃণমূলের জেলা নেতৃত্ব কোনও মন্তব্য করতে চাননি৷ তবে বিজেপির বীরভূম জেলা সভাপতি রামকৃষ্ণ রায় বলেন, তৃণমূলের লোকজনের মুখে এসব হুমকি, চোখরাঙানি মানায়৷ সাধারণ মানুষের পাশাপাশি এখন আইনকেও ভয় দেখাচ্ছে শাসকদল৷ বোঝাই যাচ্ছে এ রাজ্যে শৃঙ্খলা কোথায় পৌঁছেছে৷

Advertisement
---