স্বামীকে ছাপিয়ে গেলেন তৃণমূলের সাজদা

স্টাফ রিপোর্টার, উলুবেড়িয়া: জয় নিশ্চিত ছিল৷ তবে ব্যবধান যে এত হবে তা ভাবতে পারেননি সাজদা আহমেদ, তৃণমূলের উলুবেড়িয়া লোকসভা উপ-নির্বাচনের প্রার্থী৷

আরও পড়ুন: তৃণমূলের পতন শুধুই সময়ের অপেক্ষা: রাহুল

গত লোকসভায় এই আসনে সাজিদার স্বামী সুলতান আহমেদ ২ লক্ষর বেশি ব্যবধানে জয়ী হয়েছিলেন৷ তাঁর অকাল প্রয়াণে উপ-নির্বাচনে দলনেত্রী প্রার্থী করেছিলেন সুলতান আহমেদের স্ত্রীকে৷ দিনের শেষে দেখা গেল, তাঁর প্রাপ্ত ভোট –৭ লক্ষ ৬৭ হাজার ২১৯৷ জয়ের ব্যবধান ৪ লক্ষ ৭৪ হাজার ২০১৷ অর্থাৎ জয়ের নিরিখে পোড় খাওয়া রাজনীতিক স্বামীকে প্রায় দু’লক্ষেরও বেশি ভোটে ছাপিয়ে গেলেন সাজদা৷

- Advertisement DFP -

স্বভাবতই ফল প্রকাশের পর নিজের উচ্ছ্বাস চেপে রাখেননি সাজদা আহমেদ৷ বললেন, ‘‘দিদির নির্দেশেই ভোটে দাঁড়িয়েছিলাম৷ তবে মানুষ এত ভোটের ব্যবধানে আমাকে জয়ী করবেন, ভাবতে পারিনি৷’’ যদিও বিজেপি প্রার্থী অনুপম মল্লিক থেকে সিপিএমের সাবিরুদ্দিন মোল্লা একযোগে শাসকের বিরুদ্ধে একচেটিয়া সন্ত্রাস, ভোট লুঠের মতো গুরুতর অভিযোগ এনেছেন৷ তাঁদের কথায়, ‘‘মানুষ নিজের ভোট নিজে দিতে পারলে ফলটা অন্যরকম হত৷’’

আরও পড়ুন: রাজনীতি থেকে মুখ ফেরাচ্ছে জনতা: নোটা

তাৎপর্যপূর্ণভাবে নোয়াপাড়ার মতো উলুবেড়িয়ার উপ-নির্বাচনেও কংগ্রেস ও সিপিএমকে টপকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে বিজেপি৷ বিজেপি প্রার্থী অনুপম মল্লিকের প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা ২ লক্ষ ৯৩হাজার ১৮৷ অন্যদিকে গতবারের চেয়ে ২লক্ষেরও বেশি ভোট কমে বামেদের সাকুল্যে প্রাপ্ত ভোট ১ লক্ষ ৩৮হাজার ৭৯২টি৷ সবচেয়ে খারাপ হাল কংগ্রেসের৷ তাঁদের প্রাপ্ত ভোট মাত্র ২৩হাজার ১০৮টি৷ অন্যদিকে নোটায় (কাউকে পছন্দ নয়) ভোট দিয়েছেন ১১হাজার ৭৬৮জন৷

ফল প্রকাশের পরউ উলুবেড়িয়া জুড়ে উচ্ছ্বাসে মেতে উঠতে দেখা গেল তৃণমূল কর্মীদের৷ সাজিদা বলেন, ‘‘উলুবেড়িয়ার মানুষের আর্শীবাদ চেয়েছিলাম৷ তাঁরা দু’হাত উপুড় করে আমাকে আশীর্বাদ করেছেন৷ স্বামীর অপূরণীয় কাজ সম্পূর্ণ করার আপ্রাণ চেষ্টা করব৷’’

আরও পড়ুন: ‘৫টা রাজনৈতিক দল একজোট হলেও তৃণমূলকে হঠাতে পারবে না’

Advertisement
----
-----