গুলিবিদ্ধ নেতার অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে পথে টিএমসিপি

স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা মাজিদ আনসারিকে গুলি করার ঘটনায় শুরু হল আন্দোলন৷ এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত সাতজনের নামে অভিযোগ দায়ের হয়েছে৷

কোচবিহার কলেজের ওই ছাত্র নেতাকে গুলি করার ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে শনিবার পথে নামল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ৷ পুলিশ সুপারের দফতরের সামনে বিক্ষোভও দেখান শাসক দলের ছাত্র সংগঠনের সদস্যরা৷

আরও পড়ুন: লর্ডসে এলিট ক্লাবে প্রবেশ ধোনির

- Advertisement -

এই ঘটনায় পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন গুলিবিদ্ধ মাজিদ আনসারির দাদা সাজিদ আনসারি। তিনিও কোচবিহার কলেজের ছাত্র। যখন তাঁর ভাইকে গুলি করা হয়, সেই সময় সাজিদ ভাইয়ের সঙ্গেই ছিল। সাজিদের অভিযোগ, অভিযুক্তরা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মহম্মদ কলিম ওরফে মুন্না খানের লোক৷

তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মুন্না খানের নাম সাত জন অভিযুক্তদের মধ্যে না থাকলেও তাঁর ইশারাতেই এই ঘটনা ঘটেছে৷ এই ঘটনার পর মুন্না খানের আশ্রয়েই দুষ্কৃতীরা রয়েছে বলেই পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছে সাজিদ। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে মুন্না খান৷ তাঁর দাবি, তিনি কলেজের ঝামেলার মধ্যে কোনও দিন ছিলেন না৷ পুলিশ নিরপেক্ষ ভাবে তদন্ত করলেই সব ঘটনা পরিস্কার হবে।

আরও পড়ুন: মার্কিন চোখ রাঙানিকে উড়িয়ে সামরিকে রাশিয়াকেই চায় ভারত

এদিকে এদিনের বিক্ষোভে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য তৃণমূল ছাত্র পরিষদের-সহ সভাপতি রাহুল রায়৷ তিনি এই ঘটনায় জড়িত ও তাদের উস্কানিদাতাদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন৷ এদিন মুন্না খানের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রসঙ্গে কোচবিহার তৃণমূল কংগ্রেসের সহ সভাপতি আব্দুল জলিল আহমেদ বলেন, ‘‘কে কার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন জানি না৷ তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছেন এই সব বরদাস্ত করা হবে না, তাই পুলিশ দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।’’

আরও পড়ুন: বসয় কম তবুও বয়স্ক দেখায়? মেনে চলুন এই উপায়

Advertisement ---
---
-----